আগামী ১৬ আগস্ট থেকে জোড়াগেটে কেসিসির কোরবানীর পশুহাট শুরু হবে

পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে নগরীর জোড়াগেটে কোরবানির পশুর হাট আগামী ১৬ আগস্ট থেকে শুরু হবে। রবিবার বেলা ১১টায় নগর ভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত কেসিসি’র হাট পরিচালনা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন কেসিসি’র কাউন্সিলর ও হাট পরিচালনা কমিটির আহবায়ক মোঃ শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন।
সভায় জোড়াগেট কোরবানির পশুর হাটে সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, ক্রেতা-বিক্রেতাদের সুবিধার্থে জাল টাকা সনাক্তকরণের ব্যবস্থা, হাটে পরিচ্ছন্ন পরিবেশ নিশ্চিত করা, হাট এলাকায় ট্রাফিক ব্যবস্থা জোরদার করা, মহানগরী এলাকা থেকে অবৈধ পশুর হাট উচ্ছেদ করাসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।
কেসিসি’র প্যানেল মেয়র রুমা খাতুন, কাউন্সিলর শেখ মোঃ গাউসুল আজম, ইমাম হাসান চৌধুরী ময়না, মোঃ আলী আকবর টিপু, কে এম হুমায়ুন কবীর, মোঃ গিয়াস উদ্দিন বনি, মুহা: আমান উল্লাহ আমান, এ্যাড. শেখ জাহাঙ্গীর হুসাইন হেলাল, মোঃ হাফিজুর রহমান মনি, মোঃ আমিনুল ইসলাম মুন্না, এস এম খুরশিদ আহম্মেদ টোনা, শেখ শামসুদ্দিন আহম্মেদ প্রিন্স, মোঃ সাইফুল ইসলাম, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মনিরা আক্তার, সাহিদা বেগম, পারভিন আক্তার, আনজিরা খাতুন, রাবেয়া ফাহিদ হাসনাহেনা, রোকেয়া ফারুক, রহিমা আক্তার হেনা, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রহমান, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. একেএম আব্দুল্লাহ, নির্বাহী প্রকৌশলী মশিউজ্জামান খান, জাহিদ হোসেন শেখ, ভেটেরিনারী সার্জন ডা. রেজাউল করিম, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শরীফ শাম্মিউল ইসলাম, কঞ্জারভেন্সী অফিসার মোঃ আনিসুর রহমান, সহকারী হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ, এস্টেট অফিসার নুরুজ্জামান তালুকদার, সিনিয়র লাইসেন্স অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) এসকেএম তাছাদুজ্জামান, বাজার সুপার গাজী সালাউদ্দিন প্রমুখ সভায় উপস্থিত থেকে মতামত ব্যক্ত করেন।
প্রসঙ্গত, কেসিসির একমাত্র পশুর হাটটি ইজারার জন্য এর আগে তিন দফা দরপত্র আহ্বান করা হলেও কেউ সাড়া দেয়নি। এজন্য কেসিসির বিশেষ সভায় নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় হাট পরিচালনার সিদ্ধান্ত হয়।