ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি ডুবির ঘটনায় নিহত ২৯

ইন্দোনেশিয়ায় মঙ্গলবার যে ফেরিটি ডুবে যায়, তার অন্তত ২৯ যাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ছাড়া এখনও ৪১ জন নিখোঁজ রয়েছে। আর ৬৯ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার দেশটির কর্মকর্তারা এ কথা জানান বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি দ্বীপে ফেরিটি ডুবে যায়।

প্রসঙ্গত, এর কয়েক সপ্তাহ আগেই দেশটির তোবা হ্রদে, বিশ্বের সবচেয়ে গভীরতম ভলকানিক লেক, অতিরিক্ত যাত্রীবাহী একটি ফেরি ডুবে দুই শতাধিক লোকের মৃত্যু হয়।

দেশটির আঞ্চলিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা বলেছে, মঙ্গলবারের ফেরি ডুবির ঘটনায় ২৯ জনের মৃত্যু নিশ্চিত হওয়া গেছে। এখনও ৪১ জন নিখোঁজ রয়েছে। আর ৬৯ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ার যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, পানির উঠার কারণে ফেরিটি যখন ডুবে যায় তখন কতটি যানবাহন ছিল তা জানা যায়নি। ফেরিটি উপকূলের কাছে ছিল এবং ক্যাপ্টেন লোকজনকে বাঁচাতে দ্রুত একটি প্রবালপ্রাচীরের কাছে নেন।

প্রসঙ্গত, যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত না করা এবং অতিরিক্ত যাত্রীবহনের কারণে প্রায়ই ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি ডুবির ঘটনা ঘটে।