কাদেরের অবস্থা উন্নতির দিকে

সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের অবস্থা আগের চেয়ে ভালো বলে জানা গেছে। তার অবস্থা উন্নতির দিকে বলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন কাদেরের সঙ্গে থাকা নিউরো চিকিৎসক আবু নাসের রিজভী।

বঙ্গবন্ধু মেডিকেল সূত্র জানায়, গতকাল সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়ার পর পুরোটা সময় ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে। সেখানকার চিকিৎসকরা আশা করছেন তিনি আস্তে আস্তে সেরে উঠবেন।

বাংলাদেশ সময় সোমবার রাত আটটার দিকে কাদেরকে বহনকারী এয়ার অ্যাম্বুলেন্সটি সিঙ্গাপুরের সেলেটর নামে একটি প্রাইভেট বিমানবন্দরে অবতরণ করে। সেখান থেকে তাকে সরাসরি মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ডা. ফিলিপ কো’র তত্ত্বাবধানে চলছে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর সঙ্গে রয়েছেন তার স্ত্রী ইশরাতুন্নেসা কাদের এবং বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের চিকিৎসক আবু নাসের রিজভী।

রবিবার সকালে শ্বাসকষ্ট নিয়ে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তির পর এনজিওগ্রামে কাদেরের হৃদপিণ্ডের রক্তনালীতে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লক স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করার পর তার অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলেও পরে আবার অবনতির দিকে যায়। চিকিৎসকরা তখন কৃত্রিমভাবে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা করেন।

৬৭ বছর বয়সী এই রাজনীতিকেকে দেখতে রবিবার সন্ধ্যায় সিঙ্গাপুর থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে একটি চিকিৎসক দল ঢাকায় আসে। পরে সরকারের তরফ থেকে ভারতের প্রখ্যাত কার্ডিয়াক সার্জন দেবী প্রসাদ শেঠীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। সোমবার দুপুরে ঢাকায় এসে তিনি কাদেরের অবস্থা দেখে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

পরে তার সঙ্গে পরামর্শ করে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের চিকিৎসকরা ওবায়দুল কাদেরকে বিদেশে পাঠানোর সিদ্ধান্ত দিলে বিকালেই কাদেরকে সিঙ্গাপুরে পাঠানো হয়।