কড়া সেনা নজরদারিতে পাকিস্তানে ভোটগ্রহণ শুরু

কড়া সেনা উপস্থিতিতে পাকিস্তানের ১১তম জাতীয় নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। প্রথম ভোটটি কাস্ট করা হয়েছে খাইবার পখতুনখাওয়া প্রদেশের চরসাদ্দায়। এই ভোটযুদ্ধ হচ্ছে মুলত তিনটি দলের মধ্যে। সেগুলো হলো পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএলএন), পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ও পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ (পিটিআই)। স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় আনুষ্ঠানিকভাবে সেখানে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। উৎসাহী ভোটারা তার আগে সকাল ৭টা থেকেই ভোটকেন্দ্রগুলোর বাইরে অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে পড়েন।

ভোট গ্রহণ চলবে স্থানীয় সময় বিকেল ৬টা পর্যন্ত। ওদিকে ডন নিউজ টিভির খবর অনুযায়ী, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ও পিএমএলএনের প্রধান শাহবাজ শরীফ ভোট দিয়েছেন লাহোরের মডেল টাউনে। এরপরে সাংবাদিকদের সঙ্গে তিনি কথা বলেন। তাদের মাধ্যমে জনগণকে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে এবং পিএমএলএনকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান। নির্বাচনকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেলে ফেলার জন্য নির্বাচন কমিশনের অনুরোধে ভোটকেন্দ্রগুলোতে রেকর্ড পরিমাণ তিন লাখ ৭১ হাজার ৩৮৮ জন সেনা সদস্যকে নামানো হয়েছে। তাদেরকে দেয়া হয়েছে বিচারিক ক্ষমতা। এর আগে এত বিপুল সংখ্যক সেনা পাকিস্তানের কোনো নির্বাচনে নামানো হয় নি। সারাদেশে ৮ হাজার ৫০৮টি পোলিং স্টেশন ও ২ লাখ ৪৪ হাজার ৬৮৭টি পোলিং বুথ স্থাপন করা হচ্ছে। ১৭ হাজার ৭টি পোলিং স্টেশনকে উচ্চ মাত্রায় ঝুঁকিপূর্ণ বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। এ নির্বাচনে ভোটাররা একই সঙ্গে দুটি ব্যালট পেপারে ভোট দিচ্ছেন। একটি হলো জাতীয় পরিষদ বা পার্লামেন্টের জন্য। অন্যটি হলো প্রাদেশিক পরিষদের জন্য। জাতীয় পরিষদের ব্যালটের রং সবুজ। প্রাদেশিক পরিষদের প্রার্থীদের ব্যালটের রং সাদা। জাতীয় পরিষদের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোট ৩৪২৮ জন প্রার্থী। অন্যদিকে প্রাদেশিক পরিষদে প্রার্থী সংখ্যা ৮২৪৫। পরিসংখ্যান বলছে, রাজনৈতিক দলগুলো যে পরিমাণ প্রার্থী দিয়েছে তার চেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সংখ্যা বেশি। রাজনৈতিক দলগুলোর মোট প্রার্থী সংখ্যা ৫৬৬১। স্বতন্ত্র প্রার্থীর সংখ্যা ৬০১২। জাতীয় পরিষদে পাঞ্জাবে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রার্থী সংখ্যা পাঞ্জাবে ৮২০, সিন্ধুতে ৪৪১, খাইবার পখতুনখাওয়ায় ৩৩৫, বেলুচিস্তানে ১৭৩ এবং রাজধানীতে ৩৬। এসব আসনে যথাক্রমে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সংখ্যা ৭১৪, ৩৭৩, ৩৮৬, ১১৭ ও ৩৩। নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ৫৯ লাখ ৫৫ হাজার ৪০৯। এর মধ্য পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ৯২ লাখ ২২ হাজার ৯২৭। নারীর সংখ্যা ৪ কোটি ৬৭ লাখ ৩০ হাজার ৫৬৯। হিজড়ার সংখ্যা ১৯১৩। এর মধ্যে শুধু পাঞ্জাবেই হিজড়া ভোটার ১৩৫৬ জন।