খুলনায় ট্রা‌ফিক পু‌লি‌শের সঙ্গে রাস্তায় শিক্ষার্থীরা

খুলনার বি‌ভিন্ন রাস্তার মো‌ড়ে ট্রা‌ফিক পু‌লি‌শের পাশাপা‌শি কাজ কর‌ছে কলেজ শিক্ষার্থীরা। যানজট নিরসনসহ যানবাহ‌নের কাগজ ও ড্রাই‌ভিং লাই‌সেন্স প‌রীক্ষায় তারা ট্রা‌ফি‌ক পু‌লি‌শের সঙ্গে কাজ কর‌ছেন। এতে ক‌রে মোটরযান আই‌নে মামলার প‌রিমান বে‌ড়ে‌ছে। কোনো গা‌ড়ি ছাড়া‌নোর জন্য কোনো প্রকার ত‌দ্বিরও আসছে না বলে জানা গেছে।

সরজ‌মি‌নে খুলনার শিববা‌ড়ি মো‌ড়ে সোমবার সকাল থে‌কে দেখা যায় এ চিত্র। সাধারণ পথচারীসহ গা‌ড়ির চালকরাও এ বিষয়‌টি‌কে সাধুবাদ জানান।

সকাল থে‌কে ৩ ঘণ্টার ব্যবধা‌নে ৩৫টির মতো মামলা ও রে‌জি‌স্ট্রেশন না থাকায় ৩টি গা‌ড়ি জব্দ করা হ‌য়ে‌ছে। ট্রা‌ফিক‌দের সঙ্গে রাস্তায় কর্মরত শিক্ষার্থীরা খুলনার খানজাহান আলী আদর্শ মহাবিদ্যাল‌য়ের উচ্চ মাধ্যমিকের দ্বিতীয় ব‌র্ষের চার শিক্ষার্থী।

তারা হ‌লেন, ক্যা‌ডেট সু‌মি, ক্যা‌ডেট সোহান, ক্যা‌ডেট সো‌নিয়া, ক্যা‌ডেট তাহের।

কেএম‌পির সা‌র্জেন্ট আশরাফুল ইব‌নে আকবর ব‌লেন, শিক্ষার্থীরা আমা‌দের কা‌জে সহ‌যো‌গিতা কর‌ছেন এটা খুবই আনন্দের বিষয়। তাছাড়া বি‌ভিন্ন যানবাহন সিগন্যাল দি‌লে নানা প‌রিচ‌য়ে তদ্ব‌বির আ‌সে। কিন্তু শিক্ষার্থীরা সা‌থে থাকায় তা কর‌তে পার‌ছেনা। এটা আমাদের  কা‌জের জন্য অ‌নেক ভা‌লো হ‌য়ে‌ছে।

ট্রা‌ফিক সপ্তাহ ২০১৮ এর অংশ হি‌সে‌বে সোমবার সকাল ৮টা থে‌কে বেলা সা‌ড়ে ১১টা নাগাদ খুলনার শিববা‌ড়ি মো‌ড়ে ট্রা‌ফিক পু‌লি‌শের এ অ‌ভিযা‌নে ৩৫টির মতো মামলা হ‌য়ে‌ছে। মোটরযান আইন লঙ্ঘ‌নের কার‌নে এ মামলাগু‌লো হ‌য়ে‌ছে ব‌লে তিনি জানান।

রাস্তায় যানজট নিরস‌নে কর্মরত শিক্ষার্থীরা ব‌লেন, প্রচণ্ড রো‌দে আমাদের একটু কষ্ট হ‌চ্ছে। তা‌তেও দে‌শের জন্য কাজ কর‌ছি কষ্ট কম অনুভব হচ্ছে। আমরা দে‌শের কা‌জে আসতে পে‌রে খু‌শি ও আন‌ন্দিত।