খুলনায় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধন

তিনি আরো বলেন, মুক্ত ও বদ্ধ জলাশয়ে সমানভাবে গুরুত্ব দিয়ে মাছ চাষ করতে হবে। ইলিশ মাছের উৎপাদনে যেমন বিপ্লব তেমনি অন্য মাছের উৎপাদনেও বিপ্লব ঘটাতে হবে। মাছে কোনো রকম অপদ্রব্য প্রয়োগ করা থেকে বিরত থাকতে হবে। যারা এই কাজ করে তারা জাতীয় শত্রু। এদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আইন প্রয়োগ করতে হবে। এ জন্য প্রথমে আমাদের নৈতিকতাবোধ জাগ্রত করতে হবে।

খুলনা জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা মৎস্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় উপ-পরিচালক রণজিত কুমার পাল, মৎস্য পরিদর্শন ও মাননিয়ন্ত্রণ কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আব্দুল অদুদ এবং খুলনা বিএফএফইএ ভাইস প্রেসিডেন্ট সেখ মো. আব্দুল বাকী।

স্বাগত বক্তৃতা করেন- জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আবু ছাইদ। অন্যান্যের মধ্যে মৎস্য পরিদর্শন ও মাননিয়ন্ত্রণ কার্যালয়ের সাবেক উপ-পরিচালক প্রফুল্ল কুমার সরকার, খুলনা ফিস্ ফিড শিল্প মালিক সমিতির মহাসচিব এস এম সোহরাব হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সরদার মাহবুবার রহমান, জাতীয় মৎস্যজীবী সমিতি, মৎস্য চাষী সমিতি, চিংড়ি চাষী সমিতি এবং চিংড়ি হ্যাচারি মালিক সমিতির প্রতিনিধিরা বক্তৃতা করেন।

এর আগে প্রধান অতিথি খুলনা শহীদ হাদিস পার্কের পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত করেন এবং তাঁর নেতৃত্বে হাদিস পার্ক থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।