জোড়াগেটে কেসিসির কোরবানীর পশুর হাট উদ্বোধন, গরু আমদানি বেড়েছে

খুলনা নগরীর জোড়াগেট বাজার চত্বরে শুরু হয়েছে এ অঞ্চলের সবচেয়ে বড় কুরবানির পশুর হাট। খুলনা সিটি করপোরেশন পরিচালিত এই হাট চলবে ঈদের দিন সকাল পর্যন্ত। গতকাল রোববার সকালে সিটি মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক হাটের উদ্বোধন করেন। হাটের বাইরে কেসিসির তৈরি করা অ্যাপ ও ওয়েবসাইটে www.Kcchaat.com অনলাইনের মাধ্যমেও পশু ক্রয় এবং বিক্রয় করা যাবে।
এদিকে উদ্বোধনের দিনেই হাটে গরুর আমদানি শুরু হয়েছে। গতকাল রাত ১০টা পর্যন্ত হাটে প্রায় শতাধিক কোরবানীর গরু আনা হয়েছে। ইতোপূর্বে হাট উদ্বোধনের কয়েকদিন পর গরু উঠতো। হাটে ক্রেতাও আসছে অনেক। তবে প্রথম দিনে কোনো গরু বিক্রি হয়নি।
কেসিসি’র ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও হাট পরিচালনা কমিটির আহবায়ক মোঃ শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন জানান, হাটে প্রবেশ পথে জীবাণুনাশক ছয়টি টানেল স্থাপন করা হয়েছে এবং প্রবেশের সময় মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বয়স্ক ও শিশুরা পশুর হাটে প্রবেশ করতে পারবেন না। একপাশ দিয়ে হাটে প্রবেশ এবং অন্যপাশ দিয়ে বের হতে হবে। পশুর হাটে যাতে কোন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয় সে দিকে নজর দিতে হাট পরিচালনা কমিটিকে সিটি মেয়র নিদের্শনা দেন।
স্বপন জানান, এবারে পশুর হাটে সার্বক্ষণিক সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে নিরাপত্তা, নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের নিশ্চিত করাসহ, বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনায় জাল নোট শনাক্তকরণ, কম্পিউটারাইজড পদ্ধতিতে হাসিল আদায়সহ সকল আধুনিক ব্যবস্থা করা হয়েছে। সার্বক্ষণিক পশু চিকিৎসা ও হাটে আগতদের চিকিৎসার সুব্যবস্থা, ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও র‌্যাবের সমন্বয়ে ২৪ ঘন্টা নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
হাট উদ্বোধনের সময় মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রকিবুল ইসলাম, পুলিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহ, খুলনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোঃ ইকবাল হোসেন, কাউন্সিলর ইমাম হাসান চৌধুরী ময়না, খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম নজরুল ইসলাম, সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মুন্সি মোঃ মাহবুব আলম সোহাগ, বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।