ডুমুরিয়াসহ দেশের ১০৬টি উপজেলা আজ থেকে শতভাগ বিদ্যুতায়ন হচ্ছে

এইচ এম আলাউদ্দিন:: খুলনার ডুমুরিয়াসহ দেশের ১০৬টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়ন হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার থেকে। একযোগে আজ সকাল ১০টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ থেকেই দেশের গ্রামাঞ্চলের দু’কোটি ৩৪ লাখ লোক বিদ্যুতের আওতায় আসছেন। যার শতকরা হার ৮৭ %। এর মধ্যদিয়ে খুলনার নয়টি উপজেলার মধ্যে চারটি শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আসছে। বাকী পাঁচটির মধ্যে তেরখাদা উপজেলা ডিসেম্বর মাস নাগাদ শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আসছে। এছাড়া খুলনার বটিয়াঘাটা, দাকোপ, পাইকগাছা ও কয়রা উপজেলাসহ দেশের অন্য সব উপজেলার শতভাগ গ্রাহক আগামী বছর জুন মাস নাগাদ বিদ্যুতের আওতায় আসছে বলে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের সূত্রটি জানিয়েছে।

খুলনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সূত্রটি বলছে, ডুমুরিয়ার ৪৩৪ বর্গ কিলোমিটার এলাকা নিয়ে ১৪টি ইউনিয়নের ১৭০টি গ্রাম শতভাগ বিদ্যুতায়ন হচ্ছে আজ থেকে। এজন্য নির্মিত লাইনের পরিমাণ ১৫৮৮ কিলোমিটার। ২৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এ লাইনের মাধ্যমে ৭৮ হাজার ১৫০ জন গ্রাহককে নতুন সংযোগ দেয়া সম্ভব হবে। সূত্রটি জানায়, মোট গ্রাহকের মধ্যে আবাসিক গ্রাহকই ৬৯ হাজার ৭৩৪ জন। এছাড়া বাণিজ্যিক ৫ হাজার ৮২০, সেচ ৯৪৮, ক্ষুদ্র শিল্প ৫৪৮, বৃহৎ শিল্প ২৫ এবং দাতব্য প্রতিষ্ঠানের গ্রাহক সংখ্যা এক হাজার ৭৫ জন। নতুন এ উপজেলায় খুলনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির চারটি অভিযোগ কেন্দ্র থাকছে। এগুলো হচ্ছে চুকনগর, মিকশিমিল, শাহপুর ও ডুমুরিয়া সদর।

আজ সকাল ১০টায় ডুমুরিয়া উপজেলা পরিষদে ভিডিও কনফারেন্সের অনুষ্ঠানে উপজেলা প্রশাসন ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের যোগদান ছাড়াও সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ডুমুরিয়া উপজেলা প্রশাসন ও খুলনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানসূচীতে থাকছে সন্ধ্যা ছয়টায় ‘শেখ হাসিনার উদ্যোগ-ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ শীর্ষক আলোচনা সভা, সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় ভিডিও ক্লিপ প্রদর্শনী, পৌনে সাতটায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং রাত আটটায় আতশবাজি।

ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা: শাহনাজ বেগম বলেন, সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সটি অনুষ্ঠিত হবে উপজেলা পরিষদের শহীদ জোবায়েদ আলী মিলনায়তনে এবং সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে স্মৃতিসৌধ চত্বরে। অনুষ্ঠানের সকল আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে বলেও তিনি জানান।
বাাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন(অব:) বলেন, শতভাগ উপজেলা বিদ্যুতায়নের পরিকল্পনা অনুযায়ী ইতোমধ্যে দেশের ৮০টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়ন হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার(১ নভেম্বর) দেশের ১০৬টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন হবে। উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে আরও ৪৫টি উপজেলা। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে ৭৫টি এবং আগামী বছর জুন মাস নাগাদ অবশিষ্ট ১৪৬টি উপজেলা বিদ্যুতায়নের আওতায় আসছে বলেও তিনি এক পত্রে উল্লেখ করেছেন।

খুলনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার শহীদুজ্জামান বলেন, গ্রামাঞ্চলে বিদ্যুতায়নের ফলে এ অঞ্চলের আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপট বদলে যাচ্ছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলে পোল্ট্রি ফার্ম, কুটির শিল্পসহ বিভিন্ন ক্ষুদ্র শিল্পের বিকাশ ঘটছে।

বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমদ কায়কাউস জানিয়েছেন ডুমুরিয়া ছাড়া দেশের আর যে ১০৫টি উপজেলা আজ থেকে শতভাগ বিদ্যুতায়ন হচ্ছে সেগুলো হচ্ছে, নবাবগঞ্জ, দোহার, কাশিয়ানী, মুকসুদপুর, গোপালগঞ্জ সদর, মিঠামইন, তাড়াইল, ইটনা, হোসেনপুর, কিশোরগঞ্জ সদর, বাজিতপুর, শ্রীমঙ্গল, নাটোর সদর, নলডাঙ্গা, গুরুদাসপুর, পুঠিয়া, চারঘাটা, তানোর, চিতলমারী, চৌগাছা, ঝিকরগাছা, কেশবপুর, জীবননগর, দামুড়হুদা, পিরোজপুর সদর, হরিরামপুর, সাটুরিয়া, ঘিওর, আত্রাই, মহাদেবপুর, রানীনগর, নিয়ামতপুর, ঝালকাঠি সদর, রাজপুর, পাবনা সদর, বিশ্বনাথ, গোলাপগঞ্জ, বালাগঞ্জ, জৈন্তাপুর, ফেনী সদর, কুষ্টিয়া সদর, কুমারখালী, ফুলবাড়ী, কাহারোল, রামগঞ্জ, চন্দনাইশ, সাতকানিয়া, আনোয়ারা, বিজয়নগর, বসবা, বাঞ্চারামপুর, চান্দিনা, ব্রাক্ষণপাড়া, লালমাই, তিতাস, মেঘনা, হোমনা, দাউদকান্দি, নাঙ্গলকোট, বুড়িচং, লাকসাম, চৌদ্দগ্রাম, চাটখিল, সেনাইমুড়ি, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, তারাগঞ্জ, রংপুর সদর, তালা, কক্সবাজার সদর, টেকনাফ, গাংনী, দৌলতখান, তজুমদ্দিন, সিরাজগঞ্জ সদর, রায়গঞ্জ, তাড়াশ, চৌহালী, আটপাড়া, খালিয়াজুরী, ত্রিশাল, ময়মনসিংহ সদর, মাদারীপুর সদর, নীলফামারী সদর, কালিগঞ্জ, কালিয়াকৈর, শরীয়তপুর সদর, ডামুড্ডা, চাঁদপুর সদর, শাহরাস্তি, হাজিগঞ্জ, হাইমচর, সোনারগাঁও, নন্দিগ্রাম, সোনাতলা, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া সদর, কাহালু, আদমদীঘি, শাজাহানপুর, চরভদ্রাসন, আলফাডাঙ্গা, মাগুরা সদর ও শ্রীপুর।