দুই জেলায় সড়কে ঝরল পাঁচ প্রাণ

দেশের দুই জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচজন নিহত হয়েছেন। দুটি দুর্ঘটনাই ঘটেছে বুধবার সকালে। এর মধ্যে টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে দুই ট্রাকের সংঘর্ষে এক চালকসহ চারজন এবং মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় মারা গেছেন একজন। টাঙ্গাইলের কালিহাতীর সরাতৈল নামক এলাকায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ট্রাকের চালকসহ চারজন নিহত হয়েছেন। বুধবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- দিনাজপুর সদরের শমসের আলীর ছেলে জীবন (২৫), আমিনুল মিয়ার ছেলে মামুন (২৭), রবি দাসের ছেলে কৃষ্ণ (২৮) ও একই উপজেলার মুন্না (২৮)। এদের মধ্যে জীবন ও মামুন ঘটনাস্থলেই মারা যান। এছাড়া হাসপাতালে নেয়ার পথে কৃষ্ণ এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মুন্না।

বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশারফ হোসেন জানান, উত্তরবঙ্গ থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি পাথরভর্তি ট্রাক সাড়ে সাতটার দিকে কালিহাতীর সরাতৈল এলাকায় পৌঁছলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা উত্তরবঙ্গগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই একটি ট্রাকের চালক ও হেলপার নিহত হয়। আহত হয় আরও দুইজন।

আহতদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার সময় পথেই কৃষ্ণ মারা যান। পরে মুন্নাও চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

দুর্ঘটনার পর মহাসড়কটিতে কিছু সময়ের জন্য যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাক দুটি দ্রুত সরানো হলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

অন্যদিকে সকাল আটটার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ার ভবেরচর এলাকায় পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে একটি কাভার্ড ভ্যানের সংঘর্ষে কমলেশ নামে ৫৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন পিকআপে থাকা পাঁচ যাত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কুমিল্লাগামী যানবাহন দুটির চালাক পাল্লাপাল্লি করে গাড়ি চালাচ্ছিলেন। ভবেরচর নামক এলাকায় আসার পর কাভার্ভ ভ্যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী পিকআপটিকে ধাক্কা দেয়। এতে পিকআপটি মহাসড়ক থেকে ছিটকে নিচে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত এবং পাঁচজন আহত হয়।

গজারিয়া থানার ভবেরচর হাইওয়ে পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন জানান, দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি দুটি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।