দু’টি কেন্দ্রে ইভিএম ভোটিং সম্পর্কিত প্রচারণা শুরু

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ২৮৯টি কেন্দ্রের মধ্যে দু’টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণের জন্য পৌঁছে গেছে ইভিএম(ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন) সংক্রান্ত মালামাল। ঢাকা থেকে এসেছে একটি বিশেষজ্ঞ টিমও। বুধবার রাত থেকেই পরীক্ষামূলক প্রচারনা শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন। কেসিসির ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের শেরে বাংলা রোডস্থ সোনাপোতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের পিটিআই’র জসিম উদ্দীন হোস্টেল(নীচতলা) কেন্দ্রে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট দিতে হবে দু’হাজার ৯৭১জন ভোটারকে। এর মধ্যে ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের সোনাপোতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এক হাজার ৯৯ জন পুরুষ এবং ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের পিটিআই জসিম উদ্দীন হোস্টেল কেন্দ্রে এক হাজার ৮৭৯ জন মহিলা ভোটার রয়েছেন।
ইভিএম কেন্দ্র সংক্রান্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও বাগেরহাট জেলা নির্বাচন অফিসার মো: রুহুল আমিন বলেন, দু’টি কেন্দ্রে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণের জন্য বুধবার বিকেলেই বিশেষজ্ঞ টিম ও প্রয়োজনীয় মালামাল খুলনায় পৌঁছেছে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র এলাকায় বড় পর্দায় ইভিএম ভোটিং পদ্ধতি সম্পর্কে জনসাধারণকে ধারনা দেয়ার জন্য সন্ধ্যা থেকেই কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পিটিআই ও ময়লাপোতা সংলগ্ন কেসিসি সান্ধ্য বাজারের পার্শ্ববর্তী রাস্তার পাশে বড় পর্দায় ইভিএম সম্পর্কিত ভিডিও চিত্র দেখানো হচ্ছে। যা চলবে ১৪ মে পর্যন্ত। এছাড়া এর মধ্যেই কোন একদিন মক ভোট গ্রহণ করা হবে। তবে বুধবার সন্ধ্যায় পিটিআই’র জসিম উদ্দিন হোস্টেলে গিয়ে দেখা যায় এখনও সেখানে অবস্থানরতদের এ বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।