দুর্নীতিবাজরা শুধরে যান: প্রধানমন্ত্রী

জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে দুর্নীতিবাজদের প্রতি কঠোর বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাদেরকে শোধরাতে তাগাদা দিয়েছেন। সরকার প্রধান বলেন, ‘আমি জানি, দুর্নীতি নিয়ে সমাজের সর্বস্তরে অস্বস্তি রয়েছে। দুর্নীতির সঙ্গে জড়িতদের নিজেদের শোধরানোর আহ্বান জানাচ্ছি। আইনের কঠোর প্রয়োগের মাধ্যমে দুর্নীতি উচ্ছেদ করা হবে।’

শুক্রবার জাতির উদ্দেশে এই ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল বিটিভি ও বাংলাদেশ বেতারের মাধ্যমে এই ভাষণ সরাসরি সম্প্রচার করে সব কটি টেলিভিশন ও রেডিও স্টেশন।

গত ৩০ ডিসেম্বরের ভোটে জিতে আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে সতর্কতা দিচ্ছে। দুর্নীতি দমন কমিশনও অনুসন্ধান পর্যায়ে সম্পদ বাজেয়াপ্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রকাশ পেয়েছে বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজন দুর্নীতিবাজের বিপুল পরিমাণ সম্পদের তথ্য। সরকারি হাসপাতালগুলোতেও অভিযান শুরু করেছে সংস্থাটি। অনুপস্থিত চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে দেওয়া হয়েছে কঠোর সতর্কতা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহার সম্প্রসারণের মাধ্যমে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুর্নীতির নির্মুল করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। দুর্নীতি বন্ধে জনগণের অংশগ্রহণ জরুরি। তাই, গণমাধ্যমের সহায়তায় দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনসচেতনতা তৈরির কাজ অব্যাহত থাকবে।’

দুর্নীতি বিরোধী অভিযান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা দেখেছেন আমরা জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করে ইতোমধ্যেই মাদক, জঙ্গি তৎপরতা এবং সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে সফলতা অর্জন করেছি। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।’