দেশ এমনভাবে গড়ব যেন বিশ্ব তাকিয়ে থাকে: প্রধানমন্ত্রী

দেশ ও জাতির সার্বিক উন্নয়নে যা যা করা দরকার তাই করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  তিনি বলেন,‘আমি কাজ করতে চাই দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য। দেশকে এমনভাবে গড়ে তুলবো, যেন সারা বিশ্ব তাকিয়ে থাকে।’

রবিবার সকালে চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় কর্ণফুলী নদীর তলদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের খননকাজ উদ্বোধন শেষে সুধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে চট্টগ্রামে প্রায় ১৪ হাজার কোটি টাকার দুই মহাপ্রকল্পের নির্মাণকাজ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। প্রকল্প দুটি হচ্ছে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মিতব্য ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল’ও এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে। কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মিতব্য টানেলটি দেশের প্রথম সুড়ঙ্গপথ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু টানেলের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ উন্নয়নের নতুন ধাপে প্রবেশ করলো। টানেলটি চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলাকে শহরাঞ্চলের সঙ্গে যুক্ত করবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম শহরকে বাইপাস করে সরাসরি কক্সবাজারের সঙ্গে সহজে যোগাযোগ স্থাপিত হবে। এতে চট্টগ্রাম শহরের যানজট কমাসহ যাতায়াতের সময়ও অনেকাংশে কমে যাবে। ২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ হবে।’

দেশের সার্বিক উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলে উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। তিনি  বলেন, ‘আমরা প্রতিটি জেলায় শতভাগ বিদ্যুৎ নিশ্চিত করতে চাই। এর লক্ষে সরকার কাজ করছে।’

চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত মেরিন ড্রাইভ নির্মাণ করা হবে। এছাড়া, শহরে যাতে যানজট সৃষ্টি না হয়, সেই লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।’

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বন্দরনগরী চট্টগ্রামকে চীনের সাংহাইয়ের আদালে ‘ওয়ান সিটি টু টাউন’ মডেলে গড়েতোলা হবে কর্ণফুলীর তলদেশে এই টানেল নির্মাণের মধ্য দিয়ে।