প্রেমিকা সেজে অপহরণ, ৬দিন পর উদ্ধার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র রায়হান

অপহৃত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র রায়হানকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। রাজধানীর কলাবাগান এলাকা থেকে তাকে অপহরণ করা হয়েছিল। অপহরণের ৬ দিন পর তাকে সাভার থেকে উদ্ধার করা হয়।  এ ঘটনায় জড়িত পাঁচ অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। র‌্যাব জানিয়েছে, ফেক আইডি খুলে রায়হানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে এ চক্রটি। এক মাসের মধ্যে ডেটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়ে প্রেমিককে অপহরণ করে কাজল বেগমের অপহরণকারী চক্র।

এরা হলো- আজিজুল হাকিম (৪০), লিটন মোল্লা (২৬), কাজল বেগম (২৬), নজরুল ইসলাম বাবু (৪২) ও নুরু মিয়া (৬২)। অপহৃত রায়হান জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ অধ্যয়নরত।

র‌্যাব জানিয়েছে, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৪ এর একটি দল সাভার আমিন বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত রায়হান ও একটি প্রাইভেটকারসহ অপহরণকারী চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে। অপহৃত রায়হানের পূর্ব পরিচিত মো. বাহার তার প্রাইভেটকারে করে ঢাকার কলাবাগান থেকে সাভার থানাধীন আমিন বাজারস্থ এলাকার অজ্ঞাতনামা একটি বিল্ডিংয়ে নিয়ে আটকে রাখে।

ইতোমধ্যে অপহরণের অভিযোগের প্রেক্ষিতে অপহৃত রায়হান ও প্রাইভেটকারটি উদ্ধারে র‌্যাব-৪ এর একটি দল বিভিন্ন কলা-কৌশল অবলম্বন করে ১৭ এপ্রিল রাত সাড়ে ৮টায় সাভার থানাধীন আমিন বাজারে অভিযান চালিয়ে রায়হান (২৫) এবং ১টি সাদা রংয়ের টয়োটা কার উদ্ধার করে। একইসঙ্গে ৫ জন অপহরণকারীকে গ্রেপ্তা করে।

গ্রেপ্তারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে তারাসহ পলাতক মোঃ ফরিদ উদ্দিন (৪০) ও মোঃ বাহার (৩২) এর নাম প্রকাশ করে। আসামীগণ গত দশ বৎসর যাবৎ বিভিন্ন পন্থায় ব্যবসায়ী, পেশাজীবি ও চাকুরীজীবি এবং তাদের পরিবারের সদস্যদেরকে টার্গেট করে মোবাইল ফোন নম্বর সংগ্রহ করে বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন ও কৌশলে অপহরণ পূর্বক মুক্তিপণ আদায় করে আসছিল। রায়হানের ক্ষেত্রে প্রেমের অভিনয়কে বেছে নিয়েছিল তারা।