ফ্রান্সের জয়ে তারকাদের উল্লাস

ফুটবল মঞ্চে ফের ফরাসি বিপ্লব! রোববার লুজনিকি স্টেডিয়ামে ক্রোয়েশিয়ার রুপকথা থামিয়ে বিশ সাল বাদ ফের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হল ফ্রান্স। বিশ্ব ফুটবলের মঞ্চে ফরাসিরা প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ১৯৯৮। সেবার ফ্রান্সের নেতৃত্ব ছিল এবারের কোচ দিদিয়ের দেশঁ। এবার ফ্রান্সের বিশ্বজয়ী অধিনায়ক লরিস। ওয়ার্ল্ড কাপ নিয়ে প্রতিবারের মতো এবারেও উন্মাদনা ছিল তুঙ্গে। বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে থেকেই ফুটবলপ্রেমীদের উৎসাহ অনেক ধাপ উপরেই ছিল। মাঠের গ্যালারিতে যে উত্তেজনা প্রকাশ পেয়েছিল সে রকমই উত্তেজনা সোশ্যাল মিডিয়ার নানা পোস্টে ভরে উঠেছিল। কখনও ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা নিয়ে লড়াই তো কখনও ক্রিশ্চিয়ানো-মেসি নিয়ে বিবাদ। এ সংক্রান্ত একটি খবর প্রকাশ করেছে ভারতের কলকাতা২৪ পত্রিকা।

একদিন বিশ্বকাপের আমেজে ভরপুর ছিল চারিদিক। সাধারণ মানুষদের থেকে সেলেব্রিটিরাও কিন্তু পিছিয়ে ছিলেন না। হাজারও ব্যস্ততার মাঝে বিশ্বকাপ নিয়ে টুইটারে নিজেদের অনুভূতি প্রকাশ করেছেন। ফ্রান্সের জয়ের পরও টিমকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন তারকারা। কেউ রাশিয়ায় গিয়ে খেলা দেখেছেন তো কেউ শুটিং থেকে ছুটি পেলেই বাড়িতে গিয়ে খেলা উপভোগ করেছেন। ফ্রান্সের জয়ের পর তাদের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য টুইট করেছেন টালিউড থেকে বলিউড অভিনেতা-অভিনেত্রীরা।

অমিতাভ বচ্চন এবারে বিশ্বকাপের প্রায় প্রতিটি ম্যাচই দেখেছিলেন। ছেলে অভিষেকের মতো তারও বেশ ইন্টারেস্ট রয়েছে ফুটবলে। লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশনের দুনিয়া ছেড়ে রাশিয়ায় চলে গিয়েছেন বাবা-ছেলে। একসঙ্গে মিলে জমিয়ে ওয়ার্ল্ড কাপের মজা নিচ্ছেন অমিতাভ বচ্চন এবং অভিষেক বচ্চন। সকলেই জানে যে অভিষেক ফুটবল ফ্যান। এবং অন্যদিকে অমিতাভেরও এসব বিষয়ে খানিকটা হলেও উৎসাহ রয়েছে। ওয়ার্ল্ড কাপের সময় কোনও কাজের চাপ না থাকায় দুই তারকা সোজা উড়ে গিয়েছিলেন রাশিয়ায়। টুইট করে ফ্রান্সকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিগ বি। অন্যদিকে ক্রোয়শিয়াকেও শুভেচ্ছা জানিয়ে অমিতাভ লিখেছেন, ‘ক্রোয়েশিয়া তোমাকে অসংখ্য শুভেচ্ছা, আমাদের মন জিতে নিয়েছ তোমরা।’ এছাড়াও সুষ্ঠু এবং সুপরিকল্পিত বিশ্বকাপ আয়োজন করার জন্য রাশিয়াকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে বিপাশা বসুর পোস্টে ভরে উঠছে ফ্রান্স সমর্থকদের ভিড়ে। কারণ অভিনেত্রী তার পরিবারে একমাত্র ফ্রান্স সাপোর্টার ছিলেন। ফ্রান্সের জয়ে তার চেয়ে বেশি খুশি হয়নি। নায়িকার উচ্ছ্বাস কতখানি তা তার টুইটে প্রমাণ হয়েছে। বাড়িতে আর কেউ ফ্রান্সকে সাপোর্ট করছিলেন না তাই ফ্রান্স জেতার পর তিনি একাই নেচে সেলিব্রেট করেছেন। সেই কথাও টুইটে লিখেছেন তিনি।

টুইটে পিছিয়ে নেই টালিউডও। পরিচালক শ্রীজিত মুখোপাধ্যায় লিখেন, ‘আবার বছর কুড়ি পরে।’ ব্যস! এইটুকুই লিখে তিনি তার শুভেচ্ছা জানালেন ফ্রান্সকে। দীর্ঘ কুড়ি বছর পর ফ্রান্সের ঘরে এল বিশ্বকাপ। শ্রীজিতের পাশাপাশি আবিরও টুইট করে কংগ্র্যাচুলেট করেছেন ফ্রান্সকে। এর আগেও অবশ্য তিনি বিশ্বকাপ নিয়ে নানা আপডেট দিয়েছেন টুইটারে।