‘বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের’ নাগরিকত্ব চায় প্রবাসী ভারতীয়রা

যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাসী ভারতীয়দের কয়েকটি সংগঠন বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়া হিন্দু অভিবাসীদের নাগরিকত্ব দেয়ার দাবিতে প্রচারণা শুরু করেছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। সিংহবাহিনী আমেরিকা, গ্লোবাল হিন্দু হেরিটেজ ফাউন্ডেশন এবং নববঙ্গের মতো বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে এই দাবী জানানো হয়।

আসামের নাগরিকত্বের তালিকা এনআরসি থেকে বাদ পড়ে যাওয়া হিন্দুদেরকে ওই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করারও আহ্বান জানায় সংগঠনগুলো।

সিটিজেনশিপ অ্যাক্ট-১৯৫৫ সংশোধন করার জন্য সিটিজেনশিপ বিল ২০১৬-এর সমর্থনে প্রচারণা চালাচ্ছে প্রবাসী ভারতীয়রা।

প্রতিবেশী দেশগুলোর যেসব সংখ্যালঘু হিন্দু পালিয়ে গিয়ে ভারতে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছে, তাদের নাগরিকত্ব দেয়ার প্রস্তাব দেয়া হয় ওই বিলে।

সম্প্রতি শিকাগোয় অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড হিন্দু কংগ্রেসের সম্মেলনে প্রবাসী সংগঠনের সদস্যরা ভারতীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

এক বিবৃতিতে প্রবাসী ভারতীয়রা বলেন, ‘অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসীদের চিহ্নিত করার মহৎ উদ্দেশ্যে এনআরসি তৈরি করা হলেও পরে জানা গেছে বিপুল সংখ্যক হিন্দুও এই তালিকা থেকে বাদ পড়েছে।’

তারা জানায়, প্রায় ১৪ থেকে ২৫ লাখ হিন্দুর ভারতীয় নাগরিকত্ব বাতিল হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

‘হিন্দু ভাইবোনদের পূর্বপুরুষেরা বাংলাদেশে দমন-নিপীড়ন এড়াতে ভারতে এসেছিলেন, কিন্তু তারা তাদের ধর্মবিশ্বাস ত্যাগ করেননি’ বলা হয় ওই বিবৃতিতে।

এতে বলা হয়, ভারতের সম্পদ এর নাগরিকদের জন্য ব্যয় হচ্ছে, তা নিশ্চিত করতে সব রাজ্যে এনআরসি প্রয়োজন। কিন্তু, ‘বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের’ ভারত সুরক্ষা দিবে, এটা নিশ্চিত করাও সমান গুরুত্বপূর্ণ।