বাগেরহাটে ছয় মণ হরিণের মাংস উদ্ধার

সুন্দরবন থেকে অবৈধভাবে শিকার করে আনা ছয় মণ (২৪০ কেজি) হরিণের মাংস উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড।  শুক্রবার সকালে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের বলেশ্বর নদীর নাপিতখালী খাল এলাকা থেকে কোস্টগার্ড ওই মাংস উদ্ধার করে। তবে তারা এসময় কোন চোরা শিকারিকে আটক করতে পারেনি। সন্ধ্যায় উদ্ধার হওয়া মাংস বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করেছে কোস্টগার্ড। মংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের স্টাফ অফিসার (অপারেশন) লেফটেন্যান্ট আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বলেন, একদল চোরা শিকারি সুন্দরবন থেকে ফাঁদ দিয়ে হরিণ শিকার করে। পরে ওই হরিণ জবাই করে তার মাংস প্রস্তুত করে নৌকাযোগে লোকালয়ে নিয়ে আসছে এই সংবাদে কোস্টগার্ডের একটি দল সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের বলেশ্বর নদীর নাপিতখালী খাল এলাকায় অভিযানে যায়। চোরা শিকারিরা কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে নৌকা ফেলে বনের গহীণে পালিয়ে যায়। তাদের ফেলে যাওয়া নৌকায় তল্লাশি চালিয়ে পাঁচটি প্লাস্টিকের বস্তায় রাখা হরিণের ছয় মণ মাংস উদ্ধার করা হয়।

চোরা শিকারিরা সুন্দরবন থেকে অন্তত আটটি হরিণ শিকার করে এই মাংস লোকালয়ে বিক্রির উদ্দেশ্যে আনছিল বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন ওই কর্মকর্তা।