বিশ্বকাপ ইতিহাসের দলীয় সব রেকর্ড

রাশিয়ায় বসছে ফুটবল বিশ্বকাপের ২১তম আসর। ১৪ জুন বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপ নিয়ে ফুটবলপ্রেমীদের উন্মাদনা এখন তুঙ্গে। সবাই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। বিশ্ব ফুটবলপ্রেমীরা বৃহস্পতিবার থেকে পুরো একটি মাস বুদ হয়ে থাকবে রাশিয়া বিশ্বকাপ নিয়ে। আসুন ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের উন্মাদনায় উপুর হয়ে পড়ার আগে জেনে নিই বিশ্বকাপে ইতিহাসের দলীয় সব রেকর্ড। এগিয়ে থাকি আড্ডার টেবিলে।

বিশ্বকাপের আগের ২০টি আসরের দলীয় সব রেকর্ড তুলো ধরা হলো এখানে

১. সবচেয়ে বেশি বার চ্যাম্পিয়ন : ব্রাজিল, ৫ বার

২. সবচেয়ে বেশিবার ফাইনাল খেলা দল : জার্মানি, ৮ বার

৩. সবচেয়ে বেশিবার রানার্সআপ : জার্মানি, ৪ বার

৪. সবচেয়ে বেশিবার শীর্ষ ৩ এ শেষ করা : জার্মানি, ১২ বার

৫. সবচেয়ে বেশিবার সেমিফাইনালে খেলা : জার্মানি, ১৩ বার

৬. সবচেয়ে বেশি কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা : জার্মানি, ১৭ বার

৭. সবচেয়ে বেশিবার অংশ নেওয়া দল : ব্রাজিল, ২১ বার (আসন্ন রাশিয়া বিশ্বকাপসহ সবক’টিতেই অংশ নেওয়া একমাত্র দেশ)

৮. সবচেয়ে বেশি ম্যচি খেলেছে : জার্মানি, ১০৬ ম্যাচ

৯. সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলেছে : ইন্ডোনেশিয়া (ডাচ ইস্ট ইন্ডিজ নামে, বিশ্বকাপের চূড়ান্তপর্বে খেলা দলগুলোর মধ্যে)

১০. সবচেয়ে বেশি জয় পেয়েছে : ব্রাজিল, ৭০ ম্যাচে

১১. সবচেয়ে বেশি ম্যাচ হেরেছে : মেক্সিকো, ২৪ ম্যাচে

১২. সবেচেয় বেশি ম্যাচ ড্র করেছে : ইতালি, ২১ ম্যাচে

১৩. জয়হীন সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছে : হন্ডুরাস, ৯টি

১৪. জয় ও ড্র হীন সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছে : এল সালভাদর, ৬টি

১৫. প্রথম জয়ের আগে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছে : বুলগেরিয়া, ১৭টি

১৬. সবচেয়ে বেশি গোল করেছে : জার্মানি, ২২৪টি

১৭. সবচেয়ে বেশি গোল খেয়েছে : জার্মানি, ১২১টি

১৮. সবচেয়ে কম গোল করেছে : ০টি, কানাডা, চীন, ইন্দোনেশিয়া (ডাচ ইস্ট ইন্ডিয়া), ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো, কঙ্গো প্রজাতন্ত্র ও জায়ার (এর কোনো দলই বিশ্বকাপের মূলপর্বে গোল করতে পারেনি।)

১৯. সবচেয়ে কম গোল খেয়েছে : অ্যাঙ্গোলা, ২টি

২০. ম্যাচপ্রতি সবচেয়ে বেশি গোল করেছে : হাঙ্গেরি, ম্যাচপ্রতি ২.৭২ গোল

২১. ম্যাচপ্রতি সবচেয়ে বেশি গোল খেয়েছে : ইন্দোনিশয়া (ডাচ ইস্ট ইন্ডিজ), ৬ গোল!

২২. ম্যাচপ্রতি সবচেয়ে কম গোল খেয়েছে : অ্যাঙ্গোলা, .৬৭ (৩ ম্যাচে ২ গোল)

২৩. সবচেয়ে বেশি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে : ৭ বার করে (ব্রাজিল বনাম সুইডেন ১৯৩৮, ১৯৫০, ১৯৫৮, ১৯৭৮, ১৯৯০ এবং ১৯৯৪ বিশ্বকাপে দুবার, জার্মানি বনাম যুগোস্লাভিয়া (বর্তমানে সার্বিয়া) ১৯৬৪, ১৯৫৮, ১৯৬২, ১৯৭৪, ১৯৯০, ১৯৯৮ ও ২০১০ এবং আর্জেন্টিনা বনাম জার্মানি, ১৯৫৪, ১৯৬৬, ১৯৮৬, ১৯৯০, ২০০৬, ২০১০ ও ২০১৪)

২৪. সবচেয়ে বেশিবার ফাইনালে মুখোমুখি : ৩ বার, আর্জেন্টিনা বনাম জার্মানি (১৯৮৬, ১৯৯০ ও ২০১৪)

২৫. সবচেয়ে বেশি আসরে অপরাজিত থেকেছে : ব্রাজিল, ৭টি আসরে (১৯৫৮, ১৯৬২, ১৯৭০, ১৯৭৮, ১৯৮৬, ১৯৯৪ ও ২০০২ সালে। এর মধ্যে ৫বারই শিরোপা ঘরে তুলেছে তারা। বাকি দুবার ১৯৭৮ ও ১৯৮৬ সালে ব্রাজিল বিদায় নেয় টাইব্রেকারে হেরে। উল্লেখ্য, টাইব্রেকারের হারকে অফিসিয়ালি হার বলা হয় না, ম্যাচটা ড্র দেখানো হয়। আর টাইব্রেকারে ব্রাজিলের স্বপ্নভঙ্গ হওয়া আসর দুটিতেই শিরেপা জেতে আর্জেন্টিনা।)

২৬. কোনো ম্যাচ না হেরেও টুর্নামেন্ট থেকে সবচেয়ে বেশি বার ছিটকে পড়েছে : ইংল্যান্ড, ৩ বার (১৯৮২, ১৯৯০ ও ২০০৬ সালে)

২৭. এক আসরে সবচেয়ে বেশি ম্যাচে জয় পেয়েছে : ব্রাজিল, ৭ ম্যাচে (২০০২ সালে)

২৮. এক আসরে সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলেই চ্যাম্পিয়ন : উরুগুয়ে, ১৯৫০ বিশ্বকাপে, ৪ ম্যাচের ৩টিতে জিতেই চ্যাম্পিয়ন

২৯. সবচেয়ে বেশি বার গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় : স্কটল্যান্ড, ৮ বার