ভুঁড়ি কমাবে ‘হলুদ চা’

হাল আমলে ভুঁড়ি কমাতে চেষ্টা আর বুদ্ধি পরামর্শের যেন অভাব নেই। প্রাত ভ্রমণ, ব্যায়াম, মেপে খাওয়াদাওয়া-এগুলো আবার নগরজীবনে সবাই করতে পারেন না। তারা খুঁজেন সহজ সমাধান। এই ‘আলসে’ বা আয়েশীদের জন্য সহজ বিকল্প হতে পারে ‘হলুদ চা’। এই চা ওজন কমাবে। মেদহীন পেট উপহার দেবে।  এই ‘চায়ে’ চা পাতা দিতেই হবে এরকম কোনও ব্যাপার নেই। তবে চাইলে লিকার চায়ের সঙ্গে খেতেই পারেন। যে ভাবেই খান.. এই চায়ে কাজ হবেই। হলুদের গুণের যেন শেষ নেই। ক্যান্সার প্রতিরোধ করে হলুদ।  নানা রকম সংক্রমণের হাত থেকেও রক্ষা করে।

হলুদে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড, পটাসিয়াম ভোলাটাইল অয়েল থাকায় রান্নায় হলুদের এত প্রয়োজনীয়তা।  কাঁচা হলুদ আখের গুড়ের সঙ্গে খেলে রক্ত পরিশুদ্ধ হয়। বলা ভালো, অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টের কাজ করে।

কীভাবে কমবে ওজন?

ফ্যাট বার্নার হিসাবে কাজ করে হলুদ দা। যে কোনও রকম জ্বালা বা প্রদাহে কাঁচা হলুদ ব্যবহার করা হয়। হলুদের মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মনের চাপ কমায়, অতিরিক্ত চর্বি গলিয়ে দেয়।

মেটাবলিক সিনড্রোমের হাত থেকে রক্ষা করে হলুদ। এই সিনড্রোমের সঙ্গে ওজন বেড়ে যাওয়ার সম্পর্ক রয়েছে। ট্রাইগ্লিসারাইড, কোলেস্টেরল, রক্তে চিনির মাত্রাও নিয়ন্ত্রণে রাখে হলুদ। আর এসব নিয়ন্ত্রণে থাকলে শরীর সুস্থ থাকবে। অতিরিক্ত চর্বি জমবে না। হজমও ভালো হয়।

রেসিপি

যা যা লাগবে:

হলুদ গুঁড়ো

আদা পেস্ট বা কুচি

পানি

একটি পাত্রে জল নিয়ে গরম করুন। গরম হয়ে এলে তাতে আদা ও হলুদের পেস্ট দিয়ে ফুটিয়ে নিন। এবার পানীয়টি ঠান্ডা করে নিন। তবে খুব ঠান্ডাও করবেন না। মোটামুটি খাওয়ার মতো ঠান্ডা হয়ে এলে খেয়ে নিন। বানানোর পর বেশিক্ষণ না ফেলে রাখাই ভালো।