মাদ্রাসার উন্নয়নে প্রায় ৬ হাজার কোটি টাকা অনুমোদন

মাদ্রাসার উন্নয়নে ৫ হাজার ৯১৮ কোটি ৬৩ লাখ টাকার প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদে নির্বাহী কমিটি (একনেক)। ঢাকার শেরেবাংলা নগরস্থ একনেক সভায় একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভায় প্রকল্পটিসহ মোট ১৮টি নতুন ও সংশোধিত প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরে-বাংলা নগরে এনইসি কক্ষে একনেক সভায় এ সংক্রান্ত প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়। আজকের সভায় মোট ১৮টি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়; যার ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার ৭৮৬ কোটি টাকা।

একনেক সভা শেষে প্রকল্প নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের আওতায় মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর মাদ্রাসা উন্নয়ন প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। প্রকল্পটির প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৫ হাজার ৯১৮ কোটি টাকা। এর পুরোটাই সরকারের অর্থায়ন থেকে দেয়া হবে। প্রকল্পটি ২০২১ সালের মধ্যে বাস্তবায়িত হবে।

ব্যানবেইসের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে প্রায় ৯৩১১টি দাখিল, আলিম, ফাজিল ও কামিল মাদ্রাস রয়েছে। তার মধ্যে ৩টি সরকারি এবং বাকি ৯৩০৮টি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত হচ্ছে। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত মাদ্রসার শিক্ষকদের বেতন-ভাতা সহায়তা এমপিও এর মাধ্যমে সরকারি ভাবে প্রদান করা হয়।

বেশিরভাগ বেসরকারি মাদ্রাসারই অবকাঠামো মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। সে লক্ষ্যেই বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে এরইধ্যে ৪৫৫৯টি মাদ্রাসায় ২/৩টি শ্রেণিকক্ষ সংবলিত একতলা ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। অবশিষ্ট ৪৭৫২টি মাদ্রাসায় এখন পর্যন্ত কোনো অবকাঠামোগত উন্নয়ন করা সম্ভব হয়নি।

অধিকন্তু এখন পর্যন্ত ৯৭৮টি মাদ্রাসার অবকাঠামো সম্পূর্ণ কাঁচা প্রকৃতির এবং মাত্র ২১৪৭টি মাদ্রাসায় সম্পূর্ণ পাকা ভবন নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে।

ব্যানবেইসের তথ্য মতে, বেশিরভাব মাদ্রাসায় অবকাঠামোগত উন্নত সুবিধা এখনো গড়ে ওঠেনি। ফলে অবকাঠামোগত সুবিধা বঞ্চিত ওই সব মাদ্রাসায় অনুন্নত পরিবেশে শিক্ষার্থীরা শিক্ষা গ্রহণ করতে বাধ্য হচ্ছে। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত বিধায় পর্যাপ্ত তহবিলের অভাবে ব্যবস্থাপনা কমিটির মাধ্যমে ওই মাদ্রাসাগুলোতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক পাকা অবকাঠামো তৈরি সম্ভব হচ্ছে না। এ কারণে এসডিজি-৪ বাস্তবায়নে ও মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সারাদেশে নির্বাচিত ১৬৮১টি মাদ্রাসার অবকাঠামোগত উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।