মা-বাবার কবরের পাশে চির নিদ্রায় শায়িত এমপি সুজা

রবিবার বাদ আসর নগরীর শহিদ হাদিস পার্কে মরহুমের চতুর্থ জানাজা হয়। জানাজায় প্রধানমন্ত্রীর অর্থবিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ণচন্দ্র চন্দ, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, শেখ হেলাল উদ্দীন এমপি ও শেখ সালাউদ্দীন জুয়েল, সাবেক বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্র অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য নূরুল হক, খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও নবনির্বাচিত সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান এমপি, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ, মহানগর বিএনপি সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, মীর শওকাত আলী বাদশা এমপি, বিভাগীয় কমিশনার, ডিআইজি, পুলিশ কমিশনার, পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের নেতাকর্মী এবং হাজার হাজার সাধারণ মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

 

জানাজার আগে খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, মহানগর ও জেলা বিএনপি, জাতীয় পার্টি-জেপি, জাসদ, ওয়ার্কার্স পার্টি, সিপিবি, জাতীয় পার্টি (জাপা), খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা সিটি করপোরেশন, বিভাগীয় প্রশাসন, জেলা প্রশাসন, কেএমপি, খুলনা প্রেসক্লাব, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন, বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটি, মহানগর ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, বিভাগীয় ও জেলা ক্রীড়া সংস্থা, বিএমএসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, ছাত্র ও পেশাজীবী সংগঠন মরহুমের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করে।

এর আগে বিকাল সাড়ে ৩টায় মরহুমের মরদেহ নগরীর বাসভবন থেকে খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আনা হয়। সেখানে মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগসহ দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে শেষ শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করা হয়।

এর আগে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে এস এম মোস্তফা রশিদী সুজার মরদেহ ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে খুলনার টুটপাড়ার বাসভবনে আনা হয়। সেখানে আত্মীয়-স্বজন ও এলাকাবাসী তার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। বাদ জোহর নগরীর টুটপাড়ায়  মরহুম এস এম মোস্তফা রশিদী সুজার পিতার নামে প্রতিষ্ঠিত মবকুল হোসেন জামে মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা হয়। জানাজায় আত্মীয়-স্বজনসহ এলাকাবাসী অংশ নেন।

এর আগে সকালে জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম মোস্তফা রশিদী সুজার জানাজা সম্পন্ন হয়।

জানাজায় জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজসহ দলীয় নেতাকর্মী ও অসংখ্য গুণগ্রাহী শরিক হন।

সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় জানাজা পূর্বে মরহুমের কফিনে রাষ্ট্রপতির পক্ষে তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মো. সারোয়ার হোসেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলের নেতারা, ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজের নেতৃত্বে হুইপবৃন্দ এবং বিরোধীদলীয় নেতার পক্ষে মামুনুর রশিদ শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন।

এর আগে এস এম মোস্তফা রশিদী সুজার কর্মময় জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন শিল্পমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ।

পরে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাতে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, মন্ত্রী পরিষদের সদস্যরা, চিফ হুইপ ও হুইপবৃন্দ, সংসদ সদস্যরা, জাতীয় সংসদের কর্মকর্তা, কর্মচারী, দলীয় নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ।

প্রসঙ্গত, এস এম মোস্তফা রশিদী গত বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১১টার দিকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে, আত্মীয়-স্বজন অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।