মেসির হাতেই উঠলো গোল্ডেন বুট

লিওনেল মেসির জন্য হুমকি ছিলেন লিভারপুলের মিশরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহ। তবে শেষ পর্যন্ত সালাহ পারলেন না। আর পঞ্চমবারের মতো ইউরোপের সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার গোল্ডেন বুট ও পিচিচি ট্রফি উঠলো বার্সেলোনার এই আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের হাতেই। ২০১৭-১৮ মৌসুমে মেসির গোল ৩৪টি। তার চেয়ে মাত্র দুই গোল কম করেছেন মিশরীয় ফরোয়ার্ড সালাহ।

রোববার সোসিয়েদাদের বিপক্ষে শেষ ম্যাচ ছিলো বার্সার। এ ম্যাচের শেষদিকে নেমেছিলেন মেসি। কিন্তু গোল পান নি। তার আগের ম্যাচে লেভান্তের বিপক্ষেও মাঠে নামেননি ৩০ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। তাতেও ইউরোপের সর্বোচ্চ গোলদাতা হতে অসুবিধা হয়নি এই জাদুকরী ফুটবলারের।

গোল্ডেন বুটের লড়াইয়ে মেসি পেছনে ফেলেছেন অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোসহ এডিনসন কাভানি, রবার্ট লেওয়ানডস্কি এবং হ্যারি কেনদের। ৩২ গোল করে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছেন সালাহ। তিন নম্বরে আছেন হ্যারি কেইন। তার গোল ৩০টি। অন্যদিকে ২৬ গোল করে তালিকার ৮ নম্বরে আছেন রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ তারকা রোনালদো।

গোল্ডেন বুটের বিজয়ী নির্ধারণ করা হয় পয়েন্টের ভিত্তিতে। ইউরো সেরা ৫টি লিগের গোল প্রতি পয়েন্ট ২ করে। বেনফিকার হোনাসও করেছেন ৩৪ গোল। তবুও তিনি তালিকার ৯ নম্বরে। কারণ, তার প্রতি গোলের পয়েন্ট ১.৫ করে। ফলে তার পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে ৫১। অন্যদিকে সমান সংখ্যক গোল মেসির পয়েন্ট ৬৮। এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো গোল্ডেন বুট জিতলেন মেসি। আর রোনালদো জিতেছেন চার বার।

২০১৭-১৮ মৌসুমে ইউরোপিয়ান লিগগুলোয় সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকা

১. লিওনেল মেসি, বার্সেলোনা—৩৪ গোল (৬৮ পয়েন্ট)

২. মোহাম্মদ সালাহ, লিভারপুল—৩২ গোল (৬৪ পয়েন্ট)

৩. হ্যারি কেইন, টটেনহ্যাম হটস্পার্স—৩০ গোল (৬০ পয়েন্ট)

৪. সিরো ইমোবিলে, ল্যাজিও—২৯ গোল (৫৮ পয়েন্ট)

৫. মাউরো ইকার্দি, ইন্টার মিলান—২৯ গোল (৫৮ পয়েন্ট)

৬. রবার্ট লেওয়ানডস্কি, বায়ার্ন মিউনিখ—২৯ গোল (৫৮ পয়েন্ট)

৭. এডিনসন কাভানি, পিএসজি—২৮ গোল (৫৬ পয়েন্ট)

৮. ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, রিয়াল মাদ্রিদ—২৬ গোল (৫২ পয়েন্ট)

৯. হোনাস, বেনফিকা—৩৪ গোল (৫১ পয়েন্ট)

১০. লুইস সুয়ারেজ, বার্সেলোনা—২৫ গোল (৫০ পয়েন্ট)

সূত্র : মার্কা।