যশোরে আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাঠি ইউনিয়ানের দোগাছিয়া গ্রাম এলাকায় ডিবি পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে সেলিম (৪০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সেলিম যশোর শহরের রায়পাড়া এলাকার মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে।

ডিবি পুলিশের ভাষ্য, সেলিম ডাকাত দলের সদস্য ছিলেন। তাকে আটকের পর অস্ত্র উদ্ধারে গেলে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

ডিবি পুলিশের ওসি (তদন্ত) সৌমেন দাস জানান, একাধিক ডাকাতি মামলার আসামি সেলিমকে  সোমবার রাতে সদর উপজেলার গোবিন্দপুর এলাকার ভাড়া বাড়ি থেকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি কয়েকটি ডাকাতির সঙ্গে জড়িত ও তার হেফাজতে অস্ত্র থাকার কথা স্বীকার করেন। পরে ওইদিন রাত ৩টার দিকে তাকে নিয়ে দোগাছিয়া গ্রামে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে সেলিমের সহযোগী একদল ডাকাত পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

আত্মরক্ষার্থে পুলিশও ১০ রাউন্ড গুলি চালায়। এসময় পালাতে গিয়ে সেলিম মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার গান ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তারেক মোহাম্মদ শামস জানান, পুলিশ  ভোর পৌনে চারটার দিকে গুলিবিদ্ধ একজনকে নিয়ে আসে। তবে হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।