রোজায় প্রচলিত খাবারকে স্বাস্থ্যকরভাবে খাওয়ার উপায়

রমজান প্রত্যেক মুসলমানদের জন্য একটি পবিত্র মাস। পুরো রমজান আমরা ইবাদত ও সংযমের মাধ্যমে রোজা পালন করি। ইফতারে আমরা প্রচলিত ও ঐতিহ্যময় কিছু খাবার খেয়ে থাকি।  ঢাকাইয়া ইফতার ছাড়াও রোজায় আমাদের ঘরেও তৈরি হয় নানা রকম ইফতার।

যদিও স্বাস্থ্য রক্ষায় আমরা পরামর্শ দিয়ে থাকি ঘরে তৈরি হালকা সুষম খাবার যেন রাখা হয়। কিন্তু তারপরও ঐতিহ্যের খাতিরে অনেক সময় পরিবারের সবার কথা ভেবে এই খাবারগুলো টেবিলে রাখা হয়। তাই মন ও স্বাস্থ্য দুইটার কথা ভেবে কিভাবে এই খাবারগুলো গ্রহণ করলে কিছুটা কম ক্ষতি হবে চলুন জানি।

  • প্রাকৃতিক স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। কৃত্রিম রঙে শরীরের অনেক ক্ষতি হয়। তাই ইফতার তৈরিতে কৃত্রিম রং ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন।
  • একই তেলে বার বার ভাজাপোড়া থেকে বিরত থাকুন।
  • ডুবো তেলের পরিবর্তে হালকা স্যাঁকা খাবার তৈরি করুন।
  • ট্যাস্টিং সল্ট, চাট মশলা, বিট লবণ ও টেস্ট মেকার খাবার তৈরিতে ব্যবহার না করাই ভালো।
  • কেনা সসের পরিবর্তে ঘরে সস তৈরি করুন। অথবা চাটনি তৈরি করে উপভোগ করুন।
  • রঙিন তরল না খেয়ে প্রাকৃতিক ঘরে তৈরি তরল স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।
  • পুরো রোজায় বেসন না খেয়ে মাঝেমধ্যে তার পরিবর্তে চালের গুড়া, ময়দা ও ডিম ব্যবহার করুন।
  • ফলের জুসে চিনি ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। অথবা চিনির পরিবর্তে গুড় বা তালমিছরি বা মধু ব্যবহার করুন।
  • প্রতিদিন মুড়ি না খেয়ে মাঝেমধ্যে চিড়া বা খই ম্যানুতে রাখুন।
  • কেনা হালিম প্রতিদিন না খাওয়াই ভালো। খেলেও উপরের তেল ফেলে খাবেন। মাঝেমধ্যে পাতলা খিচুরি খেতে পারেন।
  • আলুর চপ প্রতিদিন না খেয়ে ডিম আলুর চপ বা কাঁচা কলার চপ বা মিক্স সবজি চপ খেতে পারেন।