সেপ্টেম্বরে খুলনার আধুনিক রেল স্টেশন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

খুলনা আধুনিক রেল স্টেশন আগামী সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। দু’দফা সময় বৃদ্ধির পর আধুনিক রেল স্টেশনটি নির্মাণের কাজ শেষের পথে। বহু কাঙ্খিত এ স্টেশনের নির্মাণ কাজ চলতি বছরের আগস্টে সম্পন্ন হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। বুধবার রেলওয়ে মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য মিজানুর রহমান মিজান স্টেশন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

মিজানুর রহমান মিজান বলেন, আরও আগেই আধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন এ স্টেশনটি চালু হওয়ার প্রত্যাশা ছিল। কিন্তু সেটিতে বিলম্ব হওয়ায় খুলনার মানুষ কিছুটা হতাশ হয়েছেন। তবে সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্টেশনটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বলে আশা করেন তিনি।

আধুনিক রেলস্টেশনটি চালু হলে খুলনার সঙ্গে বাংলাদেশ-ভারত রেল যোগাযোগ আরও সহজ হবে। সেই সঙ্গে যাত্রীদের খুলনা স্টেশনেই ইমিগ্রেশন ও চেকিংসহ সব ভ্রমণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন এবং ভাড়া কমানোর বিষয়েও দু’দেশের মধ্যে আলোচনা করে নিরাপদ ও সহজ যাত্রার দ্বার উন্মোচন করা হবে। এ স্টেশনে একসঙ্গে ৬টি ট্রেন প্রবেশ এবং বের হওয়ার ব্যবস্থা থাকায় প্রতিদিন প্রায় ৯ থেকে ১০ হাজার যাত্রী যাতায়াত করতে পারবেন বলেও সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

এমপি মিজান বলেন, স্টেশনটি আরও দৃষ্টিনন্দন ও এর সৌন্দর্যবর্ধনের লক্ষ্যে হাউজ বিল্ডিংয়ের ভবনটিও সরিয়ে ফেলা হবে। এ স্টেশন থেকেই বাংলাদেশ-ভারত নিরাপদ রেল যোগাযোগের মূল সেতুবন্ধ তৈরি হবে। যাত্রা আরও সহজ করতে ওয়ানস্টপ চেকিং ব্যবস্থা এবং ভাড়া কমানোর জন্যও পর্যায়ক্রমে উদ্যোগ নেয়া হবে।

এ সময় রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের জিএম মুজিবুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী (অতি.) আবু জাফর মিয়া, প্রধান বৈদ্যুতিক প্রকৌশলী প্রদীপ কুমার সাহা ও আধুনিক রেল স্টেশন নির্মাণ প্রকল্পের পরিচালক রিয়াদ আহমেদসহ রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।