১৪ হাজার ইয়াবাসহ নারী ক্রিকেটার গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকলিয়া থানাধীন শাহ আমানত সেতুর গোলচত্বর এলাকায় ১৪ হাজার ইয়াবাসহ প্রিমিয়ার লীগের এক নারী ক্রিকেটারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ রোববার ভোর পাঁচটায় নাজবীন খান মুক্তা (২৩) নামের ওই নারী ক্রিকেটারকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান বাকলিয়া থানার ওসি প্রণব চৌধুরী। ওসি জানান, নাজবীন খান মুক্তা ময়মনসিংহের ত্রিশাল মঠবাড়ি এলাকার আবুল খায়ের কাজলের মেয়ে। বর্তমানে ঢাকার ৩/১ সেগুন বাগিচার বাসিন্দা সে। ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে আনসার দলের নিয়মিত ক্রিকেটার বলে জানায় মুক্তা। এছাড়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সম্মান শ্রেণিতে ভর্তি হলেও অনিয়মিত হওয়ায় ভর্তি বাতিল হয় বলে জানান তিনি। ওসি আরো বলেন, নাজবীন খান মুক্তা রোববার ভোরে কক্সবাজার থেকে গ্রীনলাইন পরিবহনের এসি বাসে ঢাকা যাচ্ছিলেন।

এ সময় চট্টগ্রাম শাহ আমানত সেতুর গোলচত্বর এলাকায় পুলিশের নিয়মিত তল্লাশিতে তার কাছে ১৪ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মুক্তা কক্সবাজারের নাহিদ নামের একজনের কাছ থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করে ঢাকায় তার সহযোগী রিপনকে সরবরাহ করার কথা স্বীকার করেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি এই ইয়াবা পাচারে জড়িত। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান ওসি প্রণব চৌধুরী।