29 এপ্রিল 2017

নবীন শিক্ষার্থীরাই আগামীর বাংলাদেশকে নতুন দিগন্তে নিয়ে যাবে

170216-KUET  Orientation 2017খুলনানিউজ.কম:: খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং, বিইউআরপি ও বিআর্ক কোর্সের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী

কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান বলেছেন, তোমরা সোনার বাংলা নির্মাণের নতুন সৈনিক। নবীন শিক্ষার্থীরাই লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আগামীর বাংলাদেশকে নতুন দিগন্তে নিয়ে যাবে। ইউজিসি চেয়ারম্যান শিক্ষার্থীদের মাদক এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থেকে দুরে থাকারও পরামর্শ দেন।

তিঁনি আরো বলেন, শত প্রতিকূলতার মধ্যেও এদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরা সকল সুযোগ-সুবিধা তৈরীর চেষ্টা করছি, এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের সুযোগসমূহের সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে হবে। দেশের মেধাবী শিক্ষার্থীরা কুয়েটে অধ্যয়ন করছে, বাংলাদেশের অন্যতম সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে।

তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর।

এসময় তিঁনি বলেন, তোমাদের মত নতুন প্রজন্ম দেশকে এগিযে নিয়ে যাবে। এদেশ পথ হারাবে না। অসাম্প্রদায়িক চেতনায় কুয়েট এগিয়ে যাবে। শিক্ষার্থীদের পড়াশুনাকে প্রথম কাজ হিসেবে নিয়ে অন্যান্য সহশিক্ষাক্রম চালিয়ে যেতে হবে। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন এবং অনুষদের শিক্ষার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুব আলম, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোঃ আব্দুর রফিক, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মিহির রঞ্জন হালদার। এছাড়া বক্তৃতা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (ছাত্র কল্যাণ) প্রফেসর ড. সোবহান মিয়া ও স্বাগত বক্তৃতা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) জি এম শহিদুল আলম।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট পরিচালকগণ, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ, অন্যান্য পরিচালকগণ, বিভিন্ন হলের প্রভোস্টগণ, একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যগণ, দপ্তর প্রধানগণ, সাংবাদিকবৃন্দ, নবাগত ছাত্র-ছাত্রী এবং তাদের অবিভাবকবৃন্দসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ইউজিসি’র চেয়ারম্যানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর স্বারক সম্মাননা প্রদান করেন ।

ওরিয়েন্টেশন শেষে প্রধান অতিথি অডিটরিয়াম সংলগ্ন স্থানে গাছের চারা রোপন, নবনির্মিত রোকেয়া হলের নতুন ব্লকের উদ্বোধন ও শিক্ষক সমিতির সাথে মত বিনিময় করেন।

এছাড়াও অডিটোরিয়ামের সম্মুখে কুয়েট ভলেন্টরি ব্লাড ডোনেশান সোসাইটি “ড্রিমস্” এর উদ্যোগে ব্লড গ্রসুপিং কার্যক্রম, বিএনসিসি কার্যক্রম, “ওয়েষ্ট ম্যানেজমেন্ট ইনিসিয়েটিভ” সেলের মাধ্যমে সকলকে নির্দিষ্ট স্থানে আবর্জনা ফেলতে উৎসাহিত করা হয়। এদিনের বিভিন্ন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ তাদের বিভাগে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিভাগীয় ওরিয়েন্টেশন আয়োজন করে। উল্লেখ্য যে, কুয়েটে এবছর ১৪ টি স্নাতক ডিগ্রী প্রদানকারী বিভাগে ১০০২ জন নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়।

//১৬-০২-২০১৭ //