30 মার্চ 2017

দাকোপে কেরাম খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ নিহত ১

nihot90খুলনানিউজ.কম:: দাকোপের পল্লীতে কেরামখোলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নাজমুল নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত লাশ দাকোপ উপজেলা হাসপাতালে রাখা ছিল। দাকোপ থানা পুলিশ লাশের প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়না তদন্তের প্রস্তুতি চলছিল।

বৃহস্পতিবার বেলা আনুমানিক দেড়টার দিকে উপজেলার পানখালী ফেরীঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী ও নিহতের স্বজনদের সুত্রে জানা যায় পানখালী পূর্ব পাড়া গ্রামের খানজাহান শেখের পুত্র নাজমুল শেখ (২০) পানখালী ফেরীঘাট বাবলুর দোকানে কেরামবোর্ড খেলছিল।

এ সময় একই গ্রামের একব্বর শেখের পুত্র মাহাবুব শেখের সাথে কথা কাটাকাটির সুত্রে বিবাদে জড়িয়ে পড়ে। দু’জনের মধ্যে সংঘর্ষের এক পর্যায়ে নাজমুল আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাঁকে উর্দ্ধার করে দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। হাসপাতালের ভর্তির ঘন্টা খানেকের মধ্যে অর্থাৎ সন্ধ্যা পৌনে ৬ টা নাগাদ তাঁর মৃত্যু হয়। নিহতের চাচা কারিমুল শেখ দাবী করেন কর্তব্যরত ডাক্তার তাৎক্ষনিক চিকিৎসায় অবহেলা করায় রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কর্তব্যরত ডাক্তার জীবিতোষ বিশ্বাস অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন রোগী ভর্তির সময় মারামারির বিষয়টি গোপন করে গ্যাসের কারনে বুকে ব্যাথার কথা জানানো হয়। তবে রোগীর বমি এবং শরীরের অবস্থা দেখে আমি ইসিজি করার পরামর্শ দেয়। ইসিজি রিপোর্ট পাওয়ার আগেই রোগীর মৃত্যু হয় বলে তিনি জানান।

এ দিকে মৃত্যুর সংবাদ শুনে তাৎক্ষনিক দাকোপ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল কাদের বেগ, থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান হাসপাতালে গিয়ে লাশের প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত লাশ ময়না তদন্তের জন্য প্রস্তুতি চলছিল। একই সাথে হাসপাতাল চত্বর এলাকায় নিহতের পরিবারের সদস্যদের কান্নার রোল পড়ে যায়।

// শচীন্দ্রনাথ মন্ডল, দাকোপ, খুলনা: ১৪-০৫-২০১৫ //