24 মার্চ 2017

আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস উপলক্ষে খুলনায় র‌্যালি অনুষ্ঠিত

150531-khulna-railyখুলনানিউজ.কম:: নৌবাহিনীর ব্যবস্থাপনায় আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস-২০১৫ উদযাপন উপলক্ষে খুলনায় আজ সকালে পিসকিপার্স রান ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত রান ও র‌্যালিতে ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল

এস এম মতিউর রহমান, এএফডবিউসি, পিএসসি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। প্রধান অতিথি বেলুন, ফেস্টুন ও পায়রা উড়িয়ে র‌্যালির শুভ উদ্বোধন করেন। পরে র‌্যালিটি শহরের শিববাড়ী মোড় হতে শুরু হয়ে খুলনা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে সার্কিট হাউজ ময়দানে এসে শেষ হয়।

এতে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী, পুলিশ, বাংলাদেশ জাতিসংঘের সংস্থাসমূহ, স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দ, সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রী ও বিএনসিসি শিক্ষার্থীসহ মোট ৪৫০ জন অংশগ্রহণ করেন।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে অংগ্রহণকারী বিশ্বের সকল দেশের শান্তিরক্ষীদের অসামান্য অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রতিবছর ২৯ মে দিবসটি পালন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এ বছর বাংলাদেশে ৩১মে তারিখে দিবসটি পালনের লক্ষ্যে খুলনায় বিভিন্ন কর্মসূচীর পাশাপাশি র‌্যালির আয়োজন হয়।

এসময় খুলনা নৌ অঞ্চলের আঞ্চলিক কমান্ডার কমডোর শামসুল আলম, এনইউপি, পিএসসি বক্তৃতা করেন। পরে নিহত শান্তিরক্ষীদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

উলে¬খ, বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশের ১,৩৪,৯৪৭ জন শান্তিরক্ষী সদস্য বিশ্বের ৪০টি দেশে এ পর্যন্ত ৫৪টি মিশন সফলতার সাথে সম্পন্ন করেছে। বিশ্বের বিভিন্ন যুদ্ধবিধ্বস্ত অঞ্চলের শান্তি প্রতিষ্ঠা ও মানবাধিকার রক্ষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে জাতিসংঘের পরীক্ষিত বন্ধু হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে।

ফলে বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশ সর্বোচ্চ সংখ্যক শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশ হিসেবে মর্যাদা লাভ করেছে। বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় এই মহান দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশের ১২৪ জন সদস্য জীবন উৎসর্গ করেছেন।

পরিবর্তিত বিশ্বের ক্রমবর্ধমান চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় শান্তিরক্ষী সদস্যরা বিচক্ষণতা, পেশাদারিত্ব এবং বুদ্ধিদীপ্ত উপায়ে সংশি¬ষ্ট দেশের স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তা করে যাচ্ছে।

// ৩১-০৫-২০১৫ //