28 এপ্রিল 2017

কয়রায় সুন্দরবনের সুন্দরী কাঠ উদ্ধার

খুলনানিউজ.কম:: কয়রায় সুন্দরবনের কর্তন নিষিদ্ধ ২০ মন সুন্দরী কাঠ উদ্ধার করেছে বনবিভাগ। পশ্চিম সুন্দরবনের খুলনা রেঞ্জের কাশিয়াবাদ ষ্টেশন কর্মকর্তা মোঃ আলাউদ্দীনের নেতৃত্বে শনিবার বিকালে ষ্টেশনের পার্শবর্তী ৪নং কয়রা পুরাতন লঞ্চঘাট সংলগ্ন রহিম বক্স এর বাড়ী থেকে এ কাঠ উদ্ধার করা হয়েছে। সুত্রে জানাযায়, রহিম বক্সের পুত্র ইস্রাফিলের নেতৃত্বে গত ১ সপ্তাহ যাবৎ

কাশিয়াবাদ ষ্টেশনের কতিপয় কর্মকর্তার সাথে সখ্যতা করে প্রায় সহাস্রাধীক মন তরু সুন্দরী কেটে কয়রা সদর সহ বিভিন্ন এলাকায় বিক্রয় করেছে। এব্যাপারে প্রতিদিন সংস্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করা হলেও কাশিয়াবাদ ষ্টেশনের বনরক্ষিরা কোন গুরুত্ব না দেওয়ায় শতশত মন সুন্দরী কাঠ প্রকাশ্য পাচার হয়েছে বলে  নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যাক্তিরা দাবী করেন। ফলে পাচার কারীরা বে-পরোয়া ভাবে সুন্দরবনে কাঠ পাচারে মেতে ওঠে। গত ৩দিন আগে উপজেলা সদরের একটি হোটেলে শতাধীক মন সুন্দরী কাঠ রয়েছে এমন সংবাদ ষ্টেশনে দিলেও তারা কাঠ আটক না করায় বিষয়টি স্থানীয়রা কোষ্টগার্ডকে জানালে বিভিন্ন কারনে তারা আসতে না পারায় স্থানীয়রা সরকারের একটি গোয়েন্দা সংস্থাকে খবর দিলে কয়রা থানা কতৃক হোটেলে অভিজান চালীয়ে বিপুল পরিমান সুন্দরী কাঠ আটক করে পর বর্তীতে কাশিয়াবাদ ষ্টেশনে খবর দিলে তারা ১০০ মন কাঠ থেকে মাত্র কয়েকমন কাঠ লোক দেখানো মাত্র জব্দ করলে ও তার কোন মামলা হয়নি। গত ২দিন যাবৎ স্থানীয়রা রহিমবক্সের বাড়ীতে শতাধীক মন সুন্দরী কাঠ রয়েছে এমন খবর বিভিন্ন দপ্তরে দিলেও গত ২দিনে কাঠ আটক না হওয়ায় স্থানীয় জনৈক ব্যাক্তি বিষয়টি উর্দ্ধোতন মহলে জানালে শনিবার বিকালে ষ্টেশন কর্মকর্তা কাঠ উদ্ধার করলেও মাত্র ২০/২৫মন কাঠ জব্দ দেখিয়েছে। কাশিয়াবাদ ষ্টেশন কর্মকর্তা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে রহিম বক্সের বাড়ী থেকে ২০/২৫ মনের মত সুন্দরী জালানী কাঠ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও ষ্টেশন কর্মকর্তা জানান।

// শেখ সিরাজুদ্দৌলা লিংকন, কয়রা: ০২-০৫-২০১৫ //