23 জুন 2017

গোপালগঞ্জে কাভার্ডভ্যান চাপায় ৩ শ্রমিক নিহত

140916-gopalgonj acsidentখুলনানিউজ.কম:: গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে কাভার্ডভ্যান চাপায় দুই মেরামত শ্রমিকসহ তিনজন নিহত ও অপর একজন আহত হযেছেন। মঙ্গলবার দুপুর ১১টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মুকসুদপুর উপজেলার কলেজ মোড়ে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শ্রমিকরা

হলেন, গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার লোহারচূড়া গ্রামের শাহ্জাহান মোল্যার ছেলে নূর আলম মোল্যা (২৬) ও একই উপজেলার কমলাপুর গ্রামের আক্তার মোল্যার ছেলে শরিফুল মোল্যা (২২) এবং আমজাদ শেখের ছেলে রহিম শেখ (২৭)। এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের উপর গাছের গুড়ি ফেলে দুই ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। ফলে মহাসড়কের উভয় পাশে আটকা পড়ে অর্ধশতাধিক যানবাহন। এ সময় যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়ে।

মুকুদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সালাউদ্দিন মিয়া জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা খুলনাগামী সোনারগাঁ কুরিয়ার ও পার্সেল সার্ভিসের একটি কাভার্ডভ্যান ওই স্থানে একটি নসিমনকে সাইড দিতে গেলে চালক নিয়ন্ত্রণ হায়িয়ে ফেলে। এ সময় চালক রাস্তার পাশে গাড়ি মেরামতের কাজে কর্মরত কয়েকজন শ্রমিকের উপর উঠিয়ে দিলে ঘটনাস্থলেই শরীফুল ও নুর আলম নিহত হয় এবং ট্রাক শ্রমিক রহিম শেখসহ দুই শ্রমিক আহত হয়।

অবস্থা বেগতিক দেখে চালক পাশ্ববর্তী একটি পেট্রোল পাম্পে কাভার্ড ভ্যানটি রেখে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করে।

মারাত্মক আহত রহিম শেখসহ দু’জনকে প্রথমে মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে থেকে রহিমকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে ঢাকায় নেয়ার পথে তিনি মারা যান।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ও স্পিড ব্রেকার নির্মাণের দাবিতে বিক্ষুব্ধ জনতা ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ওই স্থানে গাছের গুড়ি ফেলে সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক মো. খলিলুর রহমান, সহকারি পুলিশ সুপার (সার্কেল) মোঃ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা খায়রুজ্জামান ঘটনাস্থলে গিয়ে স্পিড ব্রেকার নির্মাণ কাজের নির্দেশ দেয়ার পর কাজ শুরু করলে দুই ঘণ্টা পর বেলা ১টার দিকে অবরোধ তুলে নেয় অবরোধকারীরা।

// ১৬-০৯-২০১৪ //