26 মে 2017

সবুজ থাকতে সবুজ খান

খুলনানিউজ.কম:: শরীর সুস্থ রাখতে খাবার খাওয়া জরুরি। কিন্তু সব খাবার শরীরের সুস্থতা নিশ্চিত করে না। সবুজ খাবার শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। কেননা, এতে প্রয়োজনীয় পুষ্টি এবং খনিজ রয়েছে। হলুদ বা লাল শাকসবজিও প্রতিদিনের খাদ্যে নানা পুষ্টি উপাদান যোগ করে। ভিটামিনের অন্যতম

প্রধান উৎস হল সবুজ খাবার। জেনে নিন  স্বাস্থ্য রক্ষায় সবুজ কেন খাবেন। কম চর্বি সবুজ খাবারে চর্বি কম। এটি ভিটামিনে সমৃদ্ধ। সবুজ খাবার শরীরের অপ্রয়োজনীয় চর্বি কাটতে সাহায্য করে।

হজমের জন্য উপকারি
বাঁধাকপি, ব্রকলি, শাঁক সবজি এবং মটরশুটি জাতীয় সবুজ খাবার আঁশ সমৃদ্ধ। এটা হজমের জন্য ভাল। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে।

নতুন কোষ তৈরি করে
ফলিক অ্যাসিড নতুন কোষ উৎপাদন করে এবং নতুন কোষ ঠিক রাখে। মটর ডাল, মটরশুটি এবং অ্যাসপারাগাসের মত সবুজ খাবারে প্রচুর পরিমানে ফলিক অ্যাসিড থাকে।

চোখের জন্য ভাল
সবুজ খাবারে লুটেইন এবং জিয়াক্সানথিন মত ফাইটোকেমিয়া। যা গাঢ় সবুজ সবজিতে এই উপাদান মেলে। ফলে চোখে ছানি প্রতিরোধ করে। নির্দিষ্ট কিছু ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতেও সাহায্য করে এটি।

ক্যান্সার প্রতিরোধী
সবুজ খাবারে কোয়ারসেটিন নামক বায়োফ্ল্যাভোনয়েড থাকে। এই ফ্ল্যাভোনয়েডসে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে।

ডায়াবেটিস প্রতিরোধী
গ্লাইসেমিক  সূচক  বা  জিআই  পরিমাপ  করাটা  গুরুত্বপূর্ণ  ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য। যে  খাবারের  জিআই  যত  কম, তা  তত  ধীরে  ও  দেরিতে  রক্তে  মেশে  এবং  তত  কম  হারে  রক্তের  শর্করা  বাড়ায়।  সবুজ  সবজিতে  জিআই  কম। যারা  টাইপ-টু  ডায়াবেটিসে  ভুগছেন  তাদের  জন্য  এটি  দরকারি।

হাড় ও পেশীর জন্য ভাল
সবুজ খাবার লৌহ এবং ক্যালসিয়ামের প্রধান উৎস।হাড় শক্তিশালী, পেশী সংকোচন এবং রক্ত জমাট বাঁধতে সাহায্য করে সবুজ খাবার।
 
রোগ প্রতিরোধী
সবুজ খাবারে থাকে প্রচুর পরিমানে বিটা ক্যারোটিন। যা ভিটামিন এ তে রূপান্তরিত হতে পারে। এ কারণে শরীরের  রোগ  প্রতিরোধ  ক্ষমতা  বাড়াতে  সবুজ  শাকসবজি  খাওয়ার  বিকল্প  নেই।

// ০৭-০৫-২০১৭ //