28 মে 2017

ভূমধ্যসাগরে ৪২৪৩ অবৈধ অভিবাসী উদ্ধার

150531-avirbasi-erখুলনানিউজ.কম:: ঝুঁকিপূর্ণ বোটে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে আশ্রয় নিতে যাওয়া চার হাজার ২৪৩ অবৈধ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টা ধরে পরিচালিত ব্যাপক অভিযানে তাদের উদ্ধার করা হয়। ইতালি, আয়ারল্যান্ড, জার্মানি, বেলজিয়াম ও বৃটেনের জাহাজগুলো

ব্যাপক এ উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়। ২২টি অভিযান চালিয়ে মাছ ধরার বোট ও রবারের তৈরি ডিঙ্গি জাতীয় বোট থেকে ৪ হাজার ২৪৩ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করা সম্ভব হয় বলে জানায় ইতালির সমুদ্র উপকূলরক্ষী বাহিনী।

খবর  রয়টার্সের। গত শুক্র ও শনিবার উদ্ধার করা অভিবাসীদের অধিকাংশই সপ্তাহের শেষ দিকে ইতালির দক্ষিণাঞ্চলীয় সমুদ্রবন্দরে পৌঁছাবে বলে মনে করা হচ্ছে। গত মাসে লিবিয়ার সমুদ্র উপকূলে ২০ মিটার দীর্ঘ একটি মাছ ধরার বোটডুবির ঘটনায় প্রায় ৮০০ অভিবাসীর সলিলসমাধি হয়। এরপরই ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো মানব পাচারকারী চক্রগুলো চিহ্নিত ও তাদের সদস্যদের গ্রেপ্তারে এবং অভিবাসীদের উদ্ধারে সম্মিলিত সমুদ্র অভিযানে সম্মত হয়।

গত শুক্রবার ইতালির নৌবাহিনী জানায়, লিবিয়ার সমুদ্র উপকূলে একটি বোটে ১৭ জনের মৃতদেহ পাওয়া যায়। তবে তাদের জাতীয়তা বা কীভাবে তাদের মৃত্যু হয়, সে ব্যাপারে কোনো তথ্য প্রাথমিকভাবে প্রকাশ করা হয়নি। গতকাল রাতে ইতালির নৌবাহিনীর একটি জাহাজে ওই মৃতদেহগুলো এবং ২ শতাধিক বেঁচে যাওয়া অভিবাসীকে সিসিলির পূর্বাঞ্চলীয় অগাস্টা সমুদ্র বন্দরে নেয়া হয়।

এদিকে বছরের এ সময়টা সমুদ্র অপেক্ষাকৃত শান্ত থাকে বলে অভিবাসীরা এ সময়টাকেই বেছে নেয়। জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থার পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ইতালিতে বছরের শুরু থেকে মে মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত ৩৫,৫০০ অবৈধ অভিবাসী আশ্রয় নিয়েছে। প্রায় ১,৮০০ অভিবাসী মৃত অথবা নিখোঁজ রয়েছে। আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধবিধ্বস্ত ও দারিদ্র্যপীড়িত দেশগুলো থেকে প্রাণ বাঁচাতে অসহায় মানুষগুলো জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সমুদ্র পাড়ি দিচ্ছেন।
// ৩১-০৫-২০১৫ //