26 ফেব্রুয়ারি 2017

ওজন কমাতে রাতের বিশেষ মেনু “দই-ফল”

150520-doiখুলনানিউজ.কম:: ওজনটা নিয়ে অনেকেই বেশ বিপাকে আছেন। ওজন যত সহজে বাড়ে তত সহজে কমে না। কঠিন ডায়েট চার্ট, দীর্ঘ সময় ব্যায়াম করে ঘাম ঝরানোর কাজটাও খুবই কঠিন। তাই ওজন কমানোর ইচ্ছে থাকলেও কমানো হয়ে ওঠে না। যারা চট জলদি ওজন কমাতে চান একেবারে কষ্ট

ছাড়াই তারা রাতের খাবারের মেন্যুটা বদলে ফেলুন। রাতের খাবারে অন্য সব খাবার বাদ দিয়ে শুধু দই ফল খাওয়ার অভ্যাস করলে খুব সহজেই কম সময়ে আপনার ওজন কমে যাবে অনেক খানি। টক দইয়ের সাথে নানান ফলের মিশ্রণে তৈরি এই খাবারটি একইসঙ্গে পুষ্টিকর ও সুস্বাদু।

নিয়মিত দই ফল খাওয়ার অভ্যাস করলে আপনার শরীরে প্রয়োজনীয় পুষ্টিরও কোনো অভাব হবে না। কারণ নিয়মিত দই ফল খেলে ফলমূল থেকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও ফাইবার গ্রহণ করবে শরীর। এছাড়াও টক দইয়ে প্রচুর পরিমাণে ফসফরাস, পটাসিয়াম, রিবোফ্লাভিন, ভিটামিন বি৫, বি১২ সহ আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান আছে যা শরীরের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

ওজন কমাতে রাতের বিশেষ মেনু “দই-ফল”
প্রতিদিন একই ফল দিয়ে দইফল খেতে হবে এমন কোনো কথা নেই। যেই ঋতুতে যেই ফল পাওয়া যায় সেটা দিয়েই তৈরি করে ফেলতে পারেন দই ফল। মাত্র তিন চার রকমের ফল ঘরে থাকলেই আপনি দই ফল প্রস্তুত করতে পারেন। তবে কলা, আপেল, নাশপতি, কমলা, স্ট্রবেরি, আম, পেপে ইত্যাদি ফল দিয়ে দই ফল প্রস্তুত করলে খেতে সুস্বাদু হয়।

দই ফল প্রস্তুতের সহজ প্রণালী:

উপকরণ:

টক দই ২৫০ গ্রাম, ৪/৫ প্রকারের যে কোনো মৌসুমি ফল (ছোট করে কাটা) কাজু/পেস্তা বাদাম ১/৪ কাপ,

প্রস্তুত প্রণালি:

টক দই হালকা করে ফেটে নিন। একটি পাত্রে কিছু ফল কেটে রাখুন। ফলের উপর ফেটানো দই ঢেলে দিন। এবার দইয়ের উপর আবার কেটে রাখা বাকি ফল গুলো দিয়ে দিন। সব শেষে বাদাম ছিটিয়ে দিন।

ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন মজাদার দই ফল।

// ২০-০৫-২০১৫ //