24 এপ্রিল 2017

ট্রেন চলে অ্যাপার্টমেন্টের ভেতর দিয়ে

170329-Apartment-trainখুলনানিউজ.কম:: প্রাকৃতিক সৌন্দর্য রক্ষা ও উঁচু সব ভবনের কারণে চীনের কংকিং সিটিতে অদ্ভুত এক মনোরেল পথ দেখা যায়। সিটির পরিকল্পনাবিদ ও স্থপতিরা এমন এক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, যাতে একটি মনোরেল ১৯ তলা একটি ভবনের মাঝখান দিয়েই যাওয়া আসা করে! ব্যাপারটা

সত্যি ব্যতিক্রমী। কংকিং সিটির আশেপাশে রয়েছে ডাবা, উশান, উলিং ও ডালৌ পর্বত। কংকিংয়ের বেশিরভাগ ভূখণ্ডই তাই পাহাড়ে ঢাকা। সিটিতে জনসংখ্যা বেশি হওয়ায় সেখানে উঁচু সব ভবনও গড়ে উঠেছে। প্রায় ৪৯ মিলিয়ন মানুষের বসবাস এই সিটিতে। তাই নগর পরিকল্পনাবিদদের স্থাপনা নির্মাণে বড় সব চ্যালেঞ্জ নিতে হয়। 

সে প্রচেষ্টায় ২০০৪ সালে যখন এই মনোরেল চালু  করা হয়, তখন দুটি পথ খোলা ছিলো- হয় পুরো ভবনটিকে গুড়িয়ে দিয়ে রেলপথের জন্য জায়গা করা, নয় তো অ্যাপার্টমেন্টের দুটি ফ্লোর ভেঙ্গে একটি টানেল তৈরি করা, যাতে করে ট্রেনটি সেখান দিয়ে যেতে পারে। গতানুগতিক না হলেও নগর পরিকল্পনাবিদরা দ্বিতীয় পথটিই বেছে নিয়েছেন। এখন ১৩ বছর পর তারা সন্তুষ্ট যে সে সময় সঠিক সিদ্ধান্তই নিয়েছিলেন।


অ্যাপার্টমেন্টের মাঝখান দিয়ে ট্রেন চলাচল করা খুব অদ্ভুত ব্যাপার। আরো একটি মজার ব্যাপার হলো অ্যাপার্টমেন্টটির ৭ ও ৮ নম্বর ফ্লোরে প্যাসেঞ্জার স্টেশন গড়ে তোলা হয়েছে। এতে করে ওই ভবনের বাসিন্দারা সহজেই ট্রেনটিতে উঠতে ও ফেরার পথে নিজের ঘরের সামনে গিয়ে নামতে পারেন। তাই যোগাযোগ যেহেতু খুবই উন্নত হয়েছে, সে কারণে ওই অ্যাপার্টমেন্টের ভাড়াও খুব চড়া।

আর যে বিষয়টি হয়তো ভাবছেন, ট্রেনের শব্দ কীভাবে প্রতিদিন সহ্য করেন ভবনের বাসিন্দারা? সে প্রশ্নের উত্তর হলো-একটি হালকা  মনোরেল, এটি যখন আসা যাওয়া করে তখন সেটি ডিশ ওয়াশারের মতোই শব্দ করে। এ ছাড়া ভবনটি  উচ্চ শব্দ নিরোধক যন্ত্রণাংশ দিয়ে  গড়ে তোলা হয়েছে।
// ২৯-০৩-২০১৭ //