প্লাস্টিকের ব্যবহার কমানোর উপায়

প্লাস্টিক আমাদের কিছু সুবিধা দিয়ে থাকলেও বিনিময়ে অসুবিধার পাল্লা কিন্তু বেশি ভারি। নিয়মিত প্লাস্টিকের ব্যবহার থেকে জীবনে ঘনিয়ে আসতে পারে নানা বিপদ! প্লাস্টিকের ব্যবহার বর্জন করার পরামর্শ বহু দিন ধরেই দিয়ে আসছেন পরিবেশবিদরা। প্লাস্টিক একদিকে যেমন আমাদের ক্ষতি করে, তেমনই ক্ষতি করে পরিবেশেরও। তাই আমাদের আগামী প্রজন্মের জন্য এই পৃথিবীটা বাসযোগ্য করে তোলার জন্য আজ জেনে নিন জীবনে প্লাস্টিকের ব্যবহার কমানোর কিছু টিপস। শেভিং একটি ভালো অভ্যাস কিন্তু ডিস্পসেবল রেজর ব্যবহার করা উচিত না। পুনর্ব্যবহারযোগ্য রেজর এবং কার্ট্রিজ দিয়ে নিজের পুরনো রেজার বদলে ফেলুন।

শপিং বা বাজার করতে যাওয়ার সময় নিজের ব্যাগ নিয়ে যান। যাতে দোকান থেকে প্লাস্টিক না নিতে হয়।

সব সময় ব্যাগে রিইউজেবল পানির বোতল রাখুন। যাতে বাইরে প্লাস্টিকের বোতলে পানি কিনে খেতে না হয়। ওয়ান টাইম ইউজড পানির বোতলগুলো পরিবেশ নষ্ট করার জন্য সবচাইতে বেশি দায়ী।

অফিসে বা বেড়াতে যাওয়ার সময় নিজের কাপ সঙ্গে রাখুন। যাতে বার বার প্লাস্টিকের কাপে চা, কফি না খেতে হয়।

স্কুল, কলেজ, অফিসের লাঞ্চ প্লাস্টিকের বদলে স্টিলের কন্টেনারে নিয়ে যান। অফিসে এক সেট ছুরি-চামচ রাখুন খাওয়ার জন্য।

অনলাইন শপিং কম করুন, বিশেষ করে ইন্টারন্যাশনাল শপিং। অনেক ক্ষেত্রেই এদের ছোট পণ্যগুলোও অতিরিক্ত বড় প্লাস্টিকের প্যাকেটে মুড়ে পাঠানো হয়।

প্লাস্টিক স্ট্র তুচ্ছ বলে মনে হতে পারে তবে এটা এমন একটি ব্যবহারযোগ্য জিনিস যা সামগ্রিকভাবে সময়ের সাথে লক্ষ লক্ষ টন অপব্যবহার করা হয়। রেস্টুরেন্টে পানীয় পরিবেশনের সময়, একটি কাগজ বা ধাতু আপনি চাইতে পারেন।

কাঁচা সবজি, ফল, ড্রাই ফ্রুটস প্লাস্টিকের ব্যাগে রাখা ছাড়ুন। জাল, কাপড়ের ব্যাগ ব্যবহার করুন তার বদলে।

বাড়িতে ডিনার করার ইচ্ছা না হলে রেস্তোরাঁয় গিয়ে খান। কিন্তু টেক অ্যাওয়ে যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। অধিকাংশ রেস্তোরাঁর টেক অ্যাওয়ে সার্ভিসেই প্লাস্টিকের কন্টেনারে খাবার দেওয়া হয়।

শুকনো খাবার বা রান্না করা খাবার প্লাস্টিকের কন্টেনারে না রেখে কাচের পাত্রে রাখুন।

পরবর্তী সময় জন্য ফের ব্যবহারযোগ্য পিরিয়ড কাপ ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন। যদিও এটা আপনার পিরিয়ডের পুরো দিন থাকবে না, এটা প্যাড এবং টেম্পোন সাথে আসা প্লাস্টিক পেকেজিং এর পরিমাণ কম করতে সাহায্য করবে।

আপনার ফেস স্ক্রাব এর মধ্যে থাকা মাইক্রোবিড এর মতো উপাদানগুলো পানিতে প্লাস্টিকের পরিমাণ বৃদ্ধি করে। এটা কে বন্ধ করার জন্য বায়োডিগ্রেডেবেল জিনিসের ব্যবহার করা আরম্ভ করুন।

এডিটর-ইন-চিফ : মাহমুদ হাসান সোহেল
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : আবু বকর সিদ্দিক সাগর
নিউজরুম মেইল: khulnanews24@gmail.com এডিটর ইমেইল : editor@khulnanews.com
Khulna Office : Chamber Mansion (5th Floor), 5 KDA C/A, Jessore Road, Khulna 9100,
Dhaka Office : 102 Kakrail (1st Floor), Dhaka-1000, Bangladesh.
কপিরাইট © 2009-2020 KhulnaNews.com